অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আফগানিস্তানে মানবিক সহায়তা পাঠালো পাকিস্তান


তোরখাম সীমান্ত দিয়ে আফগানিস্তানে স আহায্য পাঠাচ্ছে আফগানিস্তান ফাইল ছবি: রয়টর্স

পাকিস্তান ত্রাণ সহায়তা হিসেবে আফগানিস্তানে কয়েক হাজার মেট্রিক টন গম পাঠানো শুরু করেছে এবং বলছে যে ঐ প্রতিবেশী দেশটিতে মানবিক ও অর্থনৈতিক পরিস্থিতির কারণে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের জরুরি মনোযোগ প্রয়োজন।

ইসলামাবাদ কাবুলকে ২ কোটি ৮০ লক্ষ ডলার মূল্যের মানবিক সাহায্য দেবার প্রতিশ্রুতির কথা জানিয়েছে। এই সাহায্যের মধ্যে রয়েছে ৫০ হাজার মেট্রিক টন গম, শীতের আশ্রয় পণ্য এবং জরুরি চিকিত্সা সামগ্রী ।

সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলিতে অনেকগুলো ট্রাকে করে খাদ্য ও চিকিত্সা সামগ্রী আফগানিস্তানে পাঠানো হয়েছে । পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রক এক বিবৃতিতে বৃহষ্পতিবার জানায় উত্তর পশ্চিমাঞ্চলের তোরখামে দুই দেশের সীমান্ত দিয়ে ১৮০০ মেট্রিক টন গম আফগান কর্তৃপক্ষের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

ঐ বিবৃতিতে জোর দিয়েই বলা হয়, “এটা খুবই জরুরি মানবিক সংকট নিরসনে এবং অর্থনৈতিক পরিস্থিতি স্থিতিশীল করতে আফগানিস্তানের জনগণের কাছে জরুরি ভিত্তিতে পৌঁছাতে হবে। পাকিস্তানি নেতারা মনে করেন আফগানিস্তানে মানবিক ও অর্থনৈতিক পরিস্থিতির অবনতি ঘটতে থাকলে এবং জরুরি সাহায্য সেখানে যদি না পৌঁছায় তা হ’লে তারা প্রতিবেশী দেশগুলোতে এবং বৃহত্তর অর্থে বিশ্বের অন্যত্রও আশ্রয় গ্রহণ করবে । পাকিস্তানে এরই মধ্যে অর্থনৈতিক কারণে দেশান্তরী মানুষ হিসেবে তিরিশ লক্ষ আফগান বাস করছে এবং তাদের নিজেদের অর্থনৈতিক সমস্যার কথা উল্লেখ করে পাকিস্তান নতুন করে আর কোন শরনার্থী গ্রহণে অপারগতা জানিয়েছে।

জাতিসংঘের হিসেব অনুযায়ী বহু বছরের যুদ্ধ এবং আন্তর্জাতিক নিষেধাজ্ঞার কারণে প্রায় দু কোটি তিরিশ লক্ষ লোক , যা কীনা আফগানিস্তানের মোট জনসংখ্যার প্রায় ৫৫% প্রচন্ড খাদ্যাভাবের সম্মুখীন এবং প্রায় ৯০ লক্ষ লোক দূর্ভিক্ষের ঝুঁকিতে রয়েছে।

XS
SM
MD
LG