অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

অভ্যন্তরীণ উগ্রবাদীদের বিষয় পর্যালোচনাকে হোয়াইট হাউজ ও পেন্টাগনের সমর্থন


হোয়াইট হাউজ ও পেন্টাগনের কর্মকর্তারা যুক্তরাষ্ট্রে অভ্যন্তরীণ উগ্রবাদীদের বিপদ সম্পর্কে পুঙ্খানুপুঙ্খ পর্যালোচনার সিদ্ধান্তকে সমর্থন করছেন। তাঁরা এই সমালোচনা নাকচ করে দিচ্ছেন যে, এই পদক্ষেপ তথাকথিত রাজনৈতিক আনুগত্যের পরীক্ষা হয়ে দাঁড়াবে।

৬ই জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের ক্যাপিটল ভবন দখলের পরিপ্রেক্ষিতে, অভ্যন্তরীণ উগ্রবাদ পর্যালোচনার এই নতুন প্রচেষ্টা নিয়ে এবং সেই সঙ্গে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী লয়েড অস্টিনের এই সিদ্ধান্ত যে, এই সমস্যার ব্যাপকতা নির্ণয়ের জন্য সামরিক বাহিনীতেও পর্যালোচনা করা হবে, সে সব বিষয়ে এক রকমের ক্ষোভের সূচনা লক্ষ্য করা যাচ্ছে।

গতকাল বাইডেন প্রশাসন অবশ্য এ ব্যাপারে আপত্তি প্রত্যাখ্যান করেছে এবং জোর দিয়েই বলেছে যে, অবাধ বক্তব্য রাখার সাংবিধানিক অধিকার কেউই সংকোচন করছে না। বিষয়টির স্পর্শকাতরতার কারণে প্রশাসনের একজন শীর্ষ কর্মকর্তা নাম না প্রকাশ করার শর্তে সংবাদদাতাদের বলেন, “ আমরা কারও রাজনৈতিক আনুগত্য কিংবা রাজনৈতিক বিশ্বাস কিংবা তাদের ভাষণ অথবা সংবিধান সংরক্ষিত তাদের রাজনৈতিক কর্মকান্ডের বিরুদ্ধে কিছু করছি না, আমরা শুধু সহিংসতার বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছি।

প্রতিরক্ষা বিভাগের একজন মুখপাত্রও দ্রুত প্রত্যাখ্যান করে। পেন্টাগনের প্রেস সচিব জন কারবি গতকাল এক প্রেস ব্রিফিংএ বলেন, এই যুক্তি যে এটি এক রকমের রাজনৈতিক আনুগত্যের পরীক্ষা তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন এবং অসত্য। কলারেডো থেকে সম্প্রতি নির্বাচিত রিপাবলিকান বিধায়ক লরেন বোবার্টের কাছ থেকে এ বিষয়ে তীক্ষ্ণ সমালোচনা আসে যখন তিনি টুইট করেন যে, প্রতিরক্ষা বিভাগের এই পর্যালোচনা আমাদের সাহসী সৈনিকদের রাজনৈতিক আনুগত্য পরীক্ষা ছাড়া আর কিছু নয়।

XS
SM
MD
LG