অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

পোপ ফ্রান্সিস নতুন বছরের ধর্মীয় ভাষণে শান্তি স্থাপনকারী হিসাবে নারীদের প্রশংসা করলেন 


পোপ ফ্রান্সিস নতুন বছরের শুরুতে ভ্যাটিকান সিটির সেন্ট পিটার্স বাসিলিকায় ধর্মীয় ভাষণ দিচ্ছেন, পহেলা জানুয়ারী, ২০২২, ছবি/অ্যান্ড্রু মেডিচিনি/এপি

পোপ ফ্রান্সিস শনিবার নতুন বছরের সূচনা করলেন বিশ্বজুড়ে শান্তি উন্নয়নে নারীদের দক্ষতার প্রশংসা করে এবং বলেন নারীদেরবিরুদ্ধে সহিংসতা ঈশ্বরে বিরুদ্ধে অপরাধসম।

রোমান ক্যাথলিক চার্চ পহেলা জানুয়ারিকে বিশ্ব শান্তির জন্য উৎসর্গ করে থাকে এবং ভ্যাটিকান সিটির সেন্ট পিটার্স বাসিলিকায় প্রায় মধ্যদিনের প্রার্থনায় যীশু খ্রীষ্টের মাতা হিসাবে কুমারী মেরি'র প্রতি শ্রদ্ধা জানানো হয়।

ফ্রান্সিস তাঁর ধর্মীয় ভাষণে বলেন, মাতারা জানেন “কি করে বাধা ও মতানৈক্যকে জয় করতে এবং শান্তি স্থাপন করতে হয়”।

এভাবেই তাঁরা পুণর্জন্ম ও প্রবৃদ্ধির সুযোগ নিয়ে সমস্যাগুলোকে সুযোগে রূপ দিয়ে থাকেন”। যাজক বলেন, “জীবনের প্রতিটি স্তরকে কি করে একত্রিত রাখতে হয়, তা তাঁরা জানান বলেই তা সম্ভবপর করে তুলতে পারেন। আমরা সেই ধরণের মাতা চাই, যারা সংঘাত ও বিভক্তির বাধা পেরিয়ে যোগাযোগের বন্ধনটি বুনতে সক্ষম হবেন”।

পোপ ফ্রান্সিস মাতা ও নারীদের উন্নয়নে এবং তাদের সুরক্ষায় এগিয়ে আসতে প্রয়াস জোরদার করার আবেদন জানান।

পোপ বলেন,“নারীরা তাদের বিরুদ্ধে নেয়া সহিংসতা ও অত্যাচার কতটাই না সইছেন, যথেষ্ট হয়েছে, মহিলাদের আঘাত করার অর্থ ঈশ্বরকে অপমান করা, যিনি এক নারী থেকে,আমাদের মানবতাকে উপহার দিয়েছেন। প্রসঙ্গত তিনি খ্রীষ্টান ধর্মীয় বিশ্বাস অনুযায়ী বলেন যে যীশু ছিলেন ঈশ্বরের পুত্র।

নতুন বছরের প্রার্থনায় পোপ ফ্রান্সিস টুইটার বার্তায় আশা ও শান্তির জন্য নেয়া কৌশলের বিস্তারিত ব্যাখ্যা দেন।

XS
SM
MD
LG