অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

মিয়ান্মারে আট রয়টার সাংবাদিকদের জামিন না-মঞ্জুর


মিয়ান্মারের ঔপনিবেশিক আমলের সরকারি গোপনীয়তা আইন লংঘনের জন্য আটক রয়টারের দু জন সাংবাদিককে আজ আদালতে হাজির করা হলে , আদালত তাঁদের জামিন দিতে অস্বীকৃতি জানায়।

ওয়া লোন এবং কিয়াও সো উ নামের এই দুই সংবাদদাতাকে ১২ ই ডিসেম্বর গ্রেপ্তার করা হয়। বলা হচ্ছে ইয়াংগুনের একটি রেস্টুরেন্টে দু জন পুলিশ তাদেরকে এক গাদা নথিপত্র দেয়। এই দু জন সংবাদদাতা রাখাইন রাজ্যে সামরিক বাহিনীর নৃশংস অভিযানের খবর সংগ্রহ করছিলেন। ঐ অভিযানের কারণে প্রায় সাত লক্ষ রোহিঙ্গা মৃসলিম সীমান্ত পার হয়ে বাংলাদেশে চলে যেতে বাধ্য হয়।

১৯২৩ সালে ব্রিটিশ আমলের ঐ আইন অনুযায়ী ওয়া লোন এবং কিয়াও সো উ দোষী সাব্যস্ত হলে তাদের ১৪ বছরের কারাদন্ড হবে।

রয়টারের প্রেসিডেন্ট এবং প্রধান সম্পাদক স্টিভেন জে অ্যাডলার একটি বিবৃতি দিয়ে , ঐ দু জনকে অব্যাহত ভাবে আটক রাখার ব্যাপারে তাঁর হতাশা প্রকাশ করেন এবং বলেন , আমরা মনে করছি আদালতের মাধ্যমেই তারা যে নিরপরাধ সে কথাই প্রমাণিত হবে এবং তারা মুক্তি পেয়ে মিয়ান্মারের খবর পাঠানোর কাজে ফিরে আসবে। অ্যাডলার বিবৃতিতে বলেন , আমরা তাঁদের দ্রুত মুক্তির দাবি জানিয়েই যাবো। বাস্তুচ্যূত রোহিঙ্গারা , মিয়ান্মারের সশস্ত্র বাহিনীর নৃশংসতার কাহিনী বলেছে , যার মধ্যে রয়েছে , গণহত্যা , ধর্ষণ , অগ্নিসংযোগ । সশস্ত্র বাহিনীর এই অভিযানকে জাতিসংঘ বলেছে এটি হচ্ছে , আক্ষরিক অর্থে জাতিগোষ্ঠিগত নিধন অভিযান।

XS
SM
MD
LG