অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশে ভোটার তালিকায় রোহিঙ্গাদের অর্ন্তভুক্তির তদন্ত শুরু করেছে দুদক


Bangladesh Rohingya

বাংলাদেশের ভোটার তালিকায় রোহিঙ্গা নাম অর্ন্তভুক্তির ঘটটন তদন্ত শুরু করেছে দুনীর্তি দমন কমিশন দুদক। এই দিনে এই ঘটনার সাথে নির্বাচন কমিশনের কোন কর্মকর্তারা জড়িত থাকলে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া কথা বলেছেন নির্বাচন কমিশনের কর্মকর্তারা। চলতি মাসের গোড়ার দিকে জাতীয় পরিচয়পত্র এবং বাংলাদেশী পার্সপোর্ট নিয়ে চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশের হাতে ধরা পড়ে বেশ কয়েক জন রোহিঙ্গা। যাদের বাড়ি মিয়ানমারের মংডু এলাকায়। এর আগে আইন শৃংখলা বাহিনীর সাথে বন্দুক যুদ্ধে নিহত এক রোহিঙ্গার কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় জাতীয় পরিচয়পত্র। প্রতিদিনই আইন শৃংখলা বাহিনীর হাতে গ্রেফতার হচ্ছে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা অসংখ্য রোহিঙ্গা। আর এদের কাছ থেকে উদ্ধার করা হচ্ছে কখনো জন্ম নিবন্ধন সনদ আবার কখনো জাতীয় পরিচয়পত্র।

বাংলাদেশের ভোটার তালিকায় রোহিঙ্গাদের অর্ন্তভুক্ত হওয়া এবং তাদের কাছে জাতীয় পরিচয়পত্র পাওয়ার ঘটনা তদন্ত শুরু করেছে দুনীর্তি দমন কমিশন-দুদক। দুদকের একটি টিম জেলা নির্বাচন কমিশনের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সাথে কথা বলেছেন বলে জানান জেলা নির্বাচন কমিশনের কর্মকর্তা মুনীর হোসাইন।

এদিকে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তাদের সাথে সোমবার বৈঠক করেছেন নির্বাচন কমিশনার কবিতা খানম। অনিয়মের সাথে কেউ জড়িত থাকলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তিমুলক ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।

২০১৫ সালে ভোটার তথ্য সংবলিত একটি ল্যাপটপ জেলা নির্বাচন কমিশন অফিস থেকে খোয়া যায়।এর পর ওই ল্যাপটপের মাধ্যমে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার অঞ্চলে রোহিঙ্গাদের কাছ থেকে বিপুল অর্থের বিনিময়ে ভোটার তালিকায় অর্ন্তভুক্ত করা হয়েছে বলে ধারণা করছেন দুদকের তদন্তকারী কর্মকর্তারা।

XS
SM
MD
LG