অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

১৯৮৫-১৯৯৪ মধ্যবর্তী সময়ে ব্যবসায়িক লোকসানের কারণে কর প্রদান থেকে অব্যাহতি পেয়েছিলেন ট্রাম্প


도널드 트럼프 미국 대통령이 15일 미네소타주 번스빌에서 열린 경제 관련 토론회에서 미-북 대화는 완벽하게 진행되고 있다며, 서두를 필요가 없다고 말했다.

উনিশ শ’ পঁচাশি এবং উনিশ শ’ চুরানব্বুই মধ্যবর্তী সময়ে ডনাল্ড ট্রাম্পের ব্যবসায়িক লোকসানের পরিমান ছিলো এক শ’ কোটি ডলারেরও বেশি এবং ঐ দশ বছরের মধ্যে আট বছর কেন্দ্রীয় সরকারকে দেয় কর প্রদান হ’তে অব্যাহতি পেয়েছিলেন তখনকার ভবিষ্যত এই রাষ্ট্রপ্রধান – এমোনটাই খবর বেরিয়েছে নিউ ইয়র্ক টাইমস পত্রিকায় । ট্রাম্প নিজেকে ব্যবসা সফল বানিজ্যপতি- রফা করায় সিদ্ধহস্ত ব’লেই মনে ক’রে থাকেন । তবে টাইমসের ঐ রিপোর্টে বলা হয়েছে – আসলে, যুক্তরাষ্ট্রের অন্য যে কোনো করদাতার চেয়েই ট্রাম্প বছরের পর বছর আর্থিক লোকসান গুনেছেন বেশি । ঐ খবরের ভিত্তি হিসেবে টাইমস বাৎসরিক করের হিসেব বা ট্যাক্স রিটার্ন ব্যবহার করেনি – সূত্র হিসেবে এমোন একজনের উল্লেখ ক’রেছে যাঁর, ঐ হিসেবের সুলুক সন্ধান জানা আছে ব’লেই বলা হচ্ছে । ঐ যে সময়টাতে ট্রাম্পের ব্যবসায়িক লোকসানের কথা বলা হচ্ছে তাতে ট্রাম্পের লোকসান দেখানো হয়েছে হোটেল-ক্যাসিনো এবং এ্যাপার্টমেন্ট ভবনের ভাড়া ইত্যাদি খাতে । ট্রাম্প নাকি একটি এয়ারলাইন খাতে বিনিয়োগ ক’রেও ক্ষতির মুখে পড়েন- পেশাদার একটি ফুটবল টীম এবং গৃহনির্মান খাতের বিনিয়োগেও লোকসান হয় তাঁর । কিন্তু এর পরেও তিনি যে একটা বিলাসবহুল জীবনধারা চালিয়ে যেতে পেরেছিলেন সেটা সম্ভব হয়েছিলো এ কারণে যে ঐ বছরগুলোয় ট্রাম্প ব্যাঙ্ক-বন্ড হোল্ডারের খাত থেকে অর্থ পেয়েছিলেন, যেসব খাতের জন্যে বিনিয়োগকারিরা, ট্রাম্প বানিজ্যের খাতে অর্থ লগ্নি ক’রেছিলেন মোটা অঙ্কে । এছাড়া তিনি তাঁর পিতার বিত্ত বৈভবের ওপরেও নির্ভর করেছেন বিস্তর । পত্রিকা ব’লছে – কিন্তু তার পরও ট্রাম্প যে সরকারী কোনো আইন ভঙ্গ ক’রেছেন বলা যাবেনা মোটে – কেননা , যুক্তরাষ্ট্রের আইনে ব্যবসায়িক লোকসান দেখাতে পারলে , মোটা অঙ্কে- তার জন্যে কর রেয়াত পাওয়া যায় । নিউ ইয়র্ক টাইমসের এ খবর পড়ে ট্রাম্প মন্তব্য ক’রেছেন – এসব এক্কেবারে ভুল খবর, ফেক নিউয ।

XS
SM
MD
LG