অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

জাতিসংঘ আফগান শিশুদের রক্ষায় ২০০ কোটি ডলারের ঐতিহাসিক মানবিক সাহায্যের আবেদন জানিয়েছে


ফাইল ছবিতে দেখা যাচ্ছে, আফগানিস্তানের কান্দাহার প্রদেশের নাসাজি গ্রামে ভ্রাম্যমাণ স্বাস্থ্য ও পুষ্টি দলের একজন নার্স একটি শিশুর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করছেন।

জাতিসংঘের শিশু তহবিল (ইউনিসেফ) মঙ্গলবার আফগানিস্তানের দুই কোটি চার লাখ মানুষের মানবিক প্রয়োজনে জরুরিভাবে সাড়া দেবার আবেদন জানিয়েছে। দুই কোটি চার লাখ মানুষের মধ্যে অর্ধেকই শিশু। কোন একটি দেশের জন্য এটি ইউনিসেফের সর্ববৃহৎ সাহায্যের আবেদন।

ত্রাণ সংস্থাটি জানিয়েছে, ২০০ কোটি ডলারের যে সাহায্যের আবেদন জানানো হয়েছে, তা দেশটির স্বাস্থ্য, পুষ্টি, শিক্ষা, পানি, পয়ঃনিষ্কাশন এবং স্বাস্থ্যবিধির পাশাপাশি শিশুদের জন্য অন্যান্য সামাজিক পরিষেবাগুলোর আসন্ন পতন এড়াতে সাহায্য করবে। দেশটিতে প্রচন্ড ঠান্ডার কারণে পরিবারগুলো তাদের ঘর উষ্ণ করতে এবং শিশুদের ঠান্ডা থেকে রক্ষা করতে হিমশিম খাচ্ছে।

আফগানিস্তানে ইউনিসেফের প্রতিনিধি এলিস আকুঙ্গা এক বিবৃতিতে জানান, দেশটির বর্তমান মানবিক পরিস্থিতি বিশেষ করে শিশুদের জন্য ভয়াবহ। তিনি বলেন, অতিরিক্ত অর্থায়ন ছাড়া তার সংস্থা এবং অংশীদাররা জরুরিভাবে ত্রাণ সহায়তা প্রয়োজন এমন শিশু ও পরিবারগুলোর কাছে পৌঁছাতে সক্ষম হবে না।

ইউনিসেফ আফগানিস্তানের শিশুদের জীবন রক্ষা, ভাল খাবার দেয়া, নিরাপত্তা ও শিক্ষার জন্য যে মানবিক আবেদন জানিয়েছে, তার মাধ্যমে সাহায্য করার জন্য দাতাদের প্রতি আহবান জানান এলিস আকুঙ্গা। তিনি বলেন, “এটি সহজ হবে না। তবে অনেক শিশুর জীবন ও সুস্থতা ঝুঁকির মধ্যে থাকায় আমাদের অবশ্যই চ্যালেঞ্জটি অতিক্রম করতে হবে।

ইউনিসেফের হিসেব অনুযায়ী, ২০২২ সালে আফগানিস্তানে খাদ্য সংকট এবং গুরুত্বপূর্ণ সামাজিক পরিষেবাগুলো না পাবার কারণে পাঁচ বছরের কম বয়সী প্রতি দু'জন শিশুর মধ্যে একজন করে 'তীব্র অপুষ্টিতে ভুগবে'।

XS
SM
MD
LG