অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

যুক্তরাষ্ট্র, চীন এবং রাশিয়ার মধ্যকার ক্রমবর্ধমান বিরোধ প্রকট হয়ে উঠেছে


জাতিসংঘের মহাসচিব এন্টোনিও গুটেরেস ৭৫তম অধিবেশন চলাকালীন নিরাপত্তা পরিষদের ভার্চুয়াল সভায় অংশ নিচ্ছেন।
বৃহস্পতিবার জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে যুক্তরাষ্ট্র, চীন এবং রাশিয়ার মধ্যে ক্রমবর্ধমান বিরোধ স্পষ্ট ভাবে প্রকট হয়ে ওঠে।এর কারণে করোনাভাইরাস রোধে আন্তর্জাতিক যে সম্মিলিত সহযোগিতা প্রয়োজন তা হুমকির মুখে পড়েছে। মহামারীর কারণে এ বছরের সমাবেশ অনলাইনে অনুষ্ঠিত হয়েছে এবং করোনা মোকাবেলা করার বিষয়টি ছিল মূল লক্ষ্য। নিরাপত্তা পরিষদে অন্য এক অনুষ্ঠানে জাতিসংঘের মহাসচিব এন্টোনিও গুটেরেস উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন যে "উচ্চ ভূ-রাজনৈতিক উত্তেজনার" প্রেক্ষাপটে এই মহামারী দেখা দিয়েছে। জাতিসংঘের সবচেয়ে শক্তিশালী সংস্থার ভিডিও কনফারেন্সে গুটেরেস বলেন, "এই মহামারী আন্তর্জাতিক সহযোগিতার একটি পরীক্ষা, যে পরীক্ষাতে আমরা ব্যর্থ হয়েছি।" এই উত্তেজনার আভাস নিরাপত্তা পরিষদে পাওয়া গেছে, যখন চীন এবং রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে তাদের বিভাজনের কথা উল্লেখ করেন। চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই বলেন, "এই ধরনের চ্যালেঞ্জিং মুহূর্তে, প্রধান দেশগুলোর মানবজাতির ভবিষ্যৎকে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দেয়া প্রয়োজন, যুদ্ধের মানসিকতা আদর্শগত পক্ষপাতিত্বকে পরিত্যাগ করে এই সমস্যার বিরুদ্ধে একযোগে একত্রিত হয়ে কাজ করা প্রয়োজন।" রাশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন যে কিছু জাতির মধ্যে বিভাজন তৈরি করেছে এই ভাইরাস। সের্গেই লাভরভ বলেন, "বেশ কয়েকটি দেশ তাদের নিজেদের সমস্যা অন্যদের ঘাড়ে চাপাতে চাইছে। তিনি আরও বলেন, কোন কোন রাষ্ট্র বর্তমান পরিস্থিতির সুযোগ নিয়ে তাদের স্বার্থ উদ্ধার ও অযাচিত সরকার বা ভূ-রাজনৈতিক প্রতিদ্বন্দ্বীদের সঙ্গে তাদের পূর্বের দ্বন্দ্ব নিষ্পত্তি করতে চাইছে। কিছু মিত্র যুক্তরাষ্ট্র এবং ট্রাম্প প্রশাসনের সমালোচনাও করেছেন বলে ধারনা করা হয়।

XS
SM
MD
LG