অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

৯/১১'র ২০তম বার্ষিকীতে বাণী দিলেন জাতিসংঘের মহাসচিব ও ব্রিটেনের রানী


সন্ত্রাসী হামলার ২০ তম বার্ষিকীর সকালে সূর্যোদয়ের সময় ওয়াশিংটনের পেন্টাগনে শনিবার আমেরিকান পতাকা ভবনের ওপর উন্মুক্ত করা হয়। ১১ সেপ্টেম্বর ২০২১।

জাতিসংঘের মহাসচিব এবং ব্রিটেনের রানী এলিজাবেথ উভয়েই ২০০১ সালের ১১ই সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্রে হামলার ২০তম বার্ষিকী উপলক্ষে বিবৃতি দিয়েছেন। ঐ ঘটনায় প্রায় ৩০০০ মানুষ নিহত হন।

যুক্তরাষ্ট্রে ১১ সেপ্টেম্বর সন্ত্রাসী হামলার ২০তম বার্ষিকী উপলক্ষে জাতিসংঘের মহাসচিব এন্টোনিও গুটেরেজের বিবৃতি হচ্ছে :

আজ আমরা সারা বিশ্ব জুড়ে লক্ষ লক্ষ মানুষের মনে গেঁথে থাকা এক অন্ধকারাচ্ছন্ন, বিষণ্ণ দিন পালন করছি।

এমন একটি দিন যেদিন যুক্তরাষ্ট্রে সন্ত্রাসবাদিদের কাপুরুষোচিত এবং জঘন্য হামলার শিকার হয়েছিল ৯০ টির ও বেশি দেশের প্রায় ৩০০০ মানুষ।আহত হয়েছিল আরো কয়েক হাজার।

এই দিনে আমি নিহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি।

সেদিনের ঘটনায় বেঁচে যাওয়া ব্যক্তিদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাই। যাদের জীবনকে আগামীর পথে চালিয়ে নিয়ে যেতে শারীরিক ও মানসিক আঘাত কাটিয়ে উঠতে হয়েছে।

এ ঘটনায় যারা প্রথম উদ্ধার কাজে এগিয়ে এসেছিলেন আমরা সেই জরুরী দমকল বাহিনীর প্রতি সম্মান প্রদর্শন করি যারা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে উদ্ধার তৎপরতায় যোগ দিয়েছিলেন।এর মধ্যে অনেকেই আর ফিরে আসেননি।তারা সেদিন মানবতা ও সহানুভূতির এক উদাহরণ স্থাপন করেছিলন যা জঙ্গিবাদ মুছে দিতে চায়।

২০ বছর আগে সন্ত্রাসমুক্ত ভবিষ্যত গড়তে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় যে সংহতি, ঐক্য এবং সংকল্পের কথা ব্যক্ত করেছিল তা আজ আমরা স্মরণ করছি।

আজ, আমরা নিউইয়র্ক শহরের মানুষ,যুক্তরাষ্ট্রের জনগণের পাশাপাশি বিশ্বের সর্বত্র সন্ত্রাসের শিকার সকল মানুষের সাথে একাত্মতা ঘোষণা করছি। আমরা তাদের অধিকার ও চাহিদা সমুন্নত রাখতে একসঙ্গে কাজ করার জন্য আবারও প্রতিশ্রুতি দিচ্ছি।

ব্রিটেনের রাজ পরিবারের ইনস্টাগ্রাম আকাউন্টের মাধ্যমে ১১ই সেপ্টেম্বর ২০০১ হামলার ২০তম বার্ষিকীতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টের কাছে রানী এলিজাবেথের পাঠানো বার্তা:

১১ই সেপ্টেম্বর ২০০১ এর ভয়াবহ হামলার ২০তম বার্ষিকীতে আমি, আমার পরিবার এবং পুরো জাতি - যারা নিহত হয়েছেন, যারা বেঁচে গেছেন এবং নিহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাচ্ছি ও প্রার্থনা করছি।সেইদিনের উদ্ধার তৎপরতায় নিয়োজিত জরুরী দমকল বাহিনীর সদস্যদের প্রতিও সমবেদনা জানাচ্ছি ও প্রার্থনা করছি।

২০১০ সালে ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের সেই স্থানের পরিদর্শন আমার স্মৃতিতে গেঁথে রয়েছে। এটি আমাকে স্মরণ করিয়ে দেয় যে, ওইদিনের ঘটনায় যে বিভিন্ন জাতি, ধর্ম এবং স্থানের মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন তাদের প্রতি আমরা যেমন সম্মান প্রদর্শন করছি ঠিক একইভাবে তাদের প্রতিও সম্মান জানাচ্ছি যারা পুনর্গঠনে ধৈর্য ও দৃঢ়তার সঙ্গে কাজ করেছেন।

XS
SM
MD
LG