অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

 মিয়ানমারে প্রতিবাদ-বিক্ষোভ অব্যাহত 


তৃতীয় দিনের মতো, সমগ্র মিয়ানমার জুড়ে প্রতিবাদকারীরা, গত সপ্তাহের সামরিক অভ্যুথানের বিরোধিতা এবং নির্বাচিত জনপ্রিয় নেত্রী, অন সান সূচি'র মুক্তির দাবিতে রাস্তায় রাস্তায় বিক্ষোভ প্রদর্শন করেনI

ইয়াঙ্গুনের মধ্যস্থলের 'সুলে প্যাগোডা', রবিবার তাদের প্রতিবাদের এক কেন্দ্রবিন্দু হয়ে দাঁড়ায়, যখন বিভিন্ন এলাকা থেকে জনগণ বিভিন্ন ব্যানারসহ স্লোগান তুলে সেখানে সমবেত হনI রাজধানী নেপিদো ও মান্দালয়সহ বিভিন্ন বড় বড় শহরেও বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়I পুলিশ নেপিদোতে বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে কাঁদানে গ্যাস ব্যবহার করেI

প্রতিবাদে অংশগ্রহণকারী অন্যতম নেতা, অন সান হেমেইন ভয়েস অব আমেরিকার বার্মিজ সার্ভিসেস জানান, "সামরিক অভ্যুথান আমাদের গণতন্ত্র ও মানবাধিকারকে লঙ্ঘন করে, যা জনগণের ইচ্ছার প্রতি অবমাননাকর ; নির্বাচনের ফলাফলকে আমাদের শ্রদ্ধা জানাতে হবে, তাই আমরা প্রতিবাদে নেমেছি"I

প্রতিবাদ বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে, সামরিক সরকার, ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ করে দিয়েছিলেন, তবে রবিবার থেকে, তা চালু করা হলে, জনগণ সামাজিক মাধ্যমে ভিডিও জীবন্ত সম্প্রচার করতে শুরু করেন I প্রতিবাদকারীরা তাদের নেত্রীর সমর্থনে "মাতা, সূচি দীর্ঘজিবী হন", "আমরা সামরিক স্বৈরশাসন চাইনা" ইত্যাদি স্লোগান তুলছিলেনI

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট, জো বাইডেন ও অন্যান্য বিশ্ব নেতারা সামরিক অভ্যুথানের নিন্দা জানিয়েছেন এবং নির্বাচিত সরকারের কাছে ক্ষমতা হস্তান্তরের আবেদন জানানI

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের ১৫টি সদস্যভুক্ত দেশ, যাতে মিয়ানমারের পৃষ্ঠপোষক, চীনও অন্তর্ভুক্ত, নেত্রী অন সান সূচি, প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট উইন মায়িন্ট এবং অন্যান্য রাজনৈতিক বন্দিদের মুক্তির আবেদন জানিয়েছেI



XS
SM
MD
LG