অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

কলোরাডোর দাবানলে শত শত বাড়ি, একটি হোটেল ভস্ম; এলাকা ছেড়েছে হাজার হাজার মানুষ 


দাবানলে দগ্ধ কলোরাডোর বোল্ডার এলাকায় এলিমেন্ট হোটেল, যেখানে হাজার হাজার লোকজনকে অন্যত্র সরিয়ে নেয়া হয়েছে, ৩১শে ডিসেম্বর, ২০২১/রয়টার্স

ডেনভারের আশেপাশে বাতাসে বেগবান দাবানলে আনুমানিক ৫৮০টি বাড়ি, একটি হোটেল ও একটি শপিং সেন্টার আগুনে পুড়ে গিয়েছে এবং হাজার হাজার মানুষকে নিরাপদে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে বলে কর্মকর্তারা বৃহস্পতিবার জানিয়েছেন।

বোল্ডার কাউন্টির শেরিফ জো পেল বলেন যে বাতাসের গতি ঘন্টায় ১৬৯ কিলোমিটার (১০৫ মাইল) পর্যন্তও পৌঁছে যায় যাতে করে সমস্ত এলাকাজুড়ে দ্রুতই তীব্র আগুন ছড়িয়ে পড়ে।

৬.৫ বর্গকিলোমিটার (২.৫ বর্গমাইল) এলাকাজুড়ে বিস্তৃত দাবানল অঞ্চলটির কিছু কিছু অংশকে ধোঁয়াচ্ছন্ন, লালাভ আকাশে ঢেকে ফেলে এবং মানুষজন নিরাপদ স্থানের খোঁজে হন্যে হয়ে ওঠে।

১৩,০০০ মানুষের শহর সুপিরিয়র-এর বাসিন্দাদের ঘর ছেড়ে নিরাপদে আশ্রয় নেওয়ার নির্দেশ দেওয়ার পর, ২১,০০০ বাসিন্দার শহর লুইভিলেও একই নির্দেশ দেওয়া হয়। পাশাপাশি অবস্থিত এই শহর দুইটি উত্তর-পশ্চিম ডেনভার থেকে প্রায় ৩২ কিলোমিটার (২০ মাইল) দূরে অবস্থিত।

দাবানলে আহত ছয়জন ইউসিহেলথ ব্রুমফিল্ড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন বলে সেখানকার মুখপাত্র কেলি ক্রিসটেনসেন জানান। ইউএস হাইওয়ে থার্টি সিক্স এর একটি নিকটবর্তী অংশও সেখানে বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

কলোরাডোর ফ্রন্ট রেঞ্জ, যেখানে রাজ্যটির বেশিরভাগ মানুষ বসবাস করেন, এ বছর একটি অত্যন্তশুষ্ক ও মৃদু হেমন্ত মৌসুম অতিবাহিত করেছে এবং এখনও পর্যন্ত শীতকালও মোটামুটি শুষ্কই রয়েছে। শুক্রবার ঐ অঞ্চলটিতে তুষারপাতের আশা করা হয়েছিল।

দাবানলের কারণে গভর্নর জ্যারেড পোলিস রাজ্যে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছেন, যার ফলে রাজ্যটি এখন দূর্যোগকালীন জরুরি তহবিল ব্যবহার করতে পারবে।

লোকজনদের নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেয়ার কাজটি চলছে কারণ গবেষকরা বলছেন যে, জলবায়ু পরিবর্তন আবহাওয়াকে আরও চরমকরে তুলছে এবং দাবানলের ঘটনাগুলোকে আরও নিয়মিত এবং ধ্বংসাত্মক করে তুলছে। ঐতিহাসিক একটি খরা এবং তাপপ্রবাহ যুক্তরাষ্ট্রের পশ্চিমাঞ্চলে দাবানলগুলোর মোকাবেলা আরও কঠিন করে ফেলেছে।

XS
SM
MD
LG