অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

নতুন পরিবারের কাছ থেকে নারীরা আশা করে স্নেহ, ভালবাসা, নির্ভরতা, নিরাপত্তা


কন্যা সন্তান বড় হলে বাবা-মায়ের চিন্তা থাকে ভালো পরিবারের ছেলের সঙ্গে বিয়ে দেবার। মেয়েকে তারা সুখী দেখতে চান। আর তাই ছেলের বাবা-মায়ের অনেক আবদার তারা মেনে নেন। কিন্তু মেয়ে এতে কি আসলেই সুখী হতে পারে? সুখী হতে হলে আসলে কি প্রয়োজন? যে নতুন পরিবারে মেয়েটি যাচ্ছে সে পরিবার থেকে স্নেহ, ভালোবাসা, নির্ভরতা, নিরাপত্তা।

বাবা-মায়ের ঘরে একটি মেয়ে অনেক আদরে লালিত হয়। মেয়ে জন্মের পর থেকেই বাবা-মা জানেন তাকে একদিন স্বামীর বাড়ি যেতে হবে। ভালো সম্ভ্রান্ত পরিবারের ছেলে দেখা শুরু হয়ে যায় মেয়ে স্বাবালিকা হওয়ার পর থেকে। বাবা-মায়েরা মনে করেন ভালো পরিবারের ছেলে ভালো জামাই হবে, মেয়ে সুখে শান্তিতে থাকবে। কিন্তু সব আশা আকাঙ্ক্ষা ভেঙ্গে দিয়ে অনেক মেয়ের জীবনে নেমে আসছে ঘোর অন্ধকার। অনেকে মুখ বুজে সব ধরণের নির্যাতন সহ্য করে যাচ্ছেন, বাবা-মা অনেক কষ্ট করে বিয়ে দিয়েছেন তাই সংসার টিকিয়ে রাখতে হবে যেকোনো মূল্যে। আর এতে অনেক মেয়ে জীবনও দিয়ে দিচ্ছেন। কেউ কেউ মানসিক রোগে ভুগছেন। ভুক্তভোগীরা বলছেন, ঐ পুরুষদের ও বোন রয়েছে, তারাও কারো ঘরণী। একবারও কি ভেবে দেখছেন না নিজের ঘরণীকে যেভাবে নির্যাতন করছেন তা কি তাঁর বোনের ক্ষেত্রে মেনে নিতে পারতেন?

পশ্চিমবঙ্গের মুর্শিদাবাদের আলেয়া খাতুনের খুব অল্প বয়সে বিয়ে হয়। বাবা-মা অনেক আনন্দে মেয়ের বিয়ে দিয়েছিলেন। কিন্তু সে সংসার সুখের হয়নি।আলেয়া বিয়ের পর জানতে পারেন স্বামী মাদকাসক্ত। তুচ্ছ তাচ্ছিল্য করতে থাকেন আলেয়াকে। অনেক সংগ্রাম করেছেন সংসার টিকিয়ে রাখার জন্য। কিন্তু শেষ পর্যন্ত পারেননি। আলেয়াকে তালাক দেবার পর তাঁর স্বামী দ্বিতীয় বিয়ে করেছেন। বিয়ের খবর পেয়ে আগেই দ্বিতীয় স্ত্রীকে সাবধান করতে গিয়েছিলেন। কিন্তু লাভ হয়নি। আশ্চর্যের বিষয় হচ্ছে, আলেয়া স্বামীর বিরুদ্ধে ৪৯৮ ধারাতে নির্যাতনের মামলা করেন বেশ আগেই। মামলা কোর্টে চলাকালীন তাঁর স্বামী দ্বিতীয় বিয়ে করেন।

একজন পুরুষ তাঁর বিরুদ্ধে নারী নির্যাতনের মামলা চলাকালীন দ্বিতীয় বিয়ে করতে পারেন কিনা জানতে কথা বলি এডভোকেট মিতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে। তিনি জানালেন একজন পুরুষ তাঁর বিরুদ্ধে নারী নির্যাতনের মামলা চলাকালীন আরেকটি বিয়ে করতে পারেন না এবং সেক্ষেত্রে আলেয়া যথাযথ পদক্ষেপ নিতে পারেন।

আজকের নারীকণ্ঠে শুনবেন আলেয়া খাতুন এবং মিতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে কথোপকথন।

XS
SM
MD
LG