অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ইরান ও বিশ্বের শক্তিধর রাষ্ট্রগুলোর মধ্যে “গঠনমূলক ‘ আলোচনা


বার্তা সংস্থা রয়টার জানাচ্ছে ইরান এবং বিশ্বের শক্তিধর রাষ্ট্রগুলো মঙ্গলবার তাঁদের কথায় “গঠনমূলক” আলোচনা করেছে এবং এ  ব্যাপারে ওয়ার্কিং গ্রুপ গঠনের ব্যাপারে সহমত  হয়েছে যাতে করে ২০১৫ সালের পরমাণু চুক্তি অনুযায়ী তেহরান তার পরমাণু কার্যক্রম কমিয়ে আনতে পারে এবং ওয়াশিংটন আরোপিত নিষেধাজ্ঞাও প্রত্যাহার  করা যেতে পারে। ইউরোপীয় মধ্যস্থতাকারীরা যুক্তরাষ্ট্রে ও ইরানকে ঐ চুক্তিতে ফিরিয়ে আনার জন্য ভিয়েনায় ইরানি ও আমেরিকান কর্মকর্তাদের সঙ্গে বার বার দেখা করছেন।

বার্তা সংস্থা রয়টার জানাচ্ছে ইরান এবং বিশ্বের শক্তিধর রাষ্ট্রগুলো মঙ্গলবার তাঁদের কথায় “গঠনমূলক” আলোচনা করেছে এবং এ ব্যাপারে ওয়ার্কিং গ্রুপ গঠনের ব্যাপারে সহমত হয়েছে যাতে করে ২০১৫ সালের পরমাণু চুক্তি অনুযায়ী তেহরান তার পরমাণু কার্যক্রম কমিয়ে আনতে পারে এবং ওয়াশিংটন আরোপিত নিষেধাজ্ঞাও প্রত্যাহার করা যেতে পারে। ইউরোপীয় মধ্যস্থতাকারীরা যুক্তরাষ্ট্রে ও ইরানকে ঐ চুক্তিতে ফিরিয়ে আনার জন্য ভিয়েনায় ইরানি ও আমেরিকান কর্মকর্তাদের সঙ্গে বার বার দেখা করছেন। ঐ চুক্তিতে ইরানের পরমাণু কর্মসূচি হ্রাস করার বিনিময়ে ইরানের উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হয়েছিল।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প ২০১৮ সালে যুক্তরাষ্ট্রকে ঐ চুক্তি থেকে বের করে নিয়ে আসেন যার ফলে ইরান তার ঐ চুক্তিতে ব্যক্ত পরমাণু কর্মসূচির সীমারেখা ধীরে ধীরে লংঘন করতে শুরু করে। মঙ্গলবারের এই আলোচনায় এই মূল চুক্তির অবশিষ্ট দেশগুলো, ইরান , ব্রিটেন, চীন, ফ্রান্স জার্মানি এবং রাশিয়া এই যৌথ কমিশন যোগ দেয় যার সভাপতিত্ব করে ইউরোপীয় ইউনিয়ন । যুক্তরাষ্ট্র এই বৈঠকে যোগ দেয়নি। যদিও ওয়াশিংটন কিংবা ইরান কেউই বলছে না যে এই আলোচনা থেকে দ্রুত কোন সমাধান বেরিয়ে আসবে , তারা এবং ইউরোপীয় ইউনিয়ন এই প্রাথমিক আলোচনাকে ইতিবাচক ভাবে বর্ণনা করে।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রধান সমন্বয়কারি এনরিক মোরা টুইটারে লেখেন , “ এটি ছিল গঠনমূলক যৌথ বৈঠক । পরমাণু চুক্তির বাস্তবায়ন এবং নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয়ার বিষেয়ে দুটি বিশেষজ্ঞ গোষ্ঠির সঙ্গে যৌথ কুটনৈতিক প্রক্রিয়ার জন্য এক ধরণের একতা এবং উচ্চাকাঙ্খা রয়েছে”।

XS
SM
MD
LG