অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলা বিভাগ সম্পর্কে

ভয়েস অফ আমেরিকা (ভিওএ) হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের সবচাইতে বড় মাল্টি মিডিয়া সংবাদ মাধ্যম। যে সব দেশে সংবাদ মাধ্যমের স্বাধীনতা নেই বা জনগন সীমিত সংবাদ পায়, তাদের কাছে ভিওএ ৪৫টিরও বেশী ভাষায় খবর পৌছে দেয়। ভিওএ প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯৪২ সালে। শ্রোতা ও দর্শকদের কাছে সত্য, সার্বিক, নিরপেক্ষ খবর পৌছে দেওয়ার বিষয়ে ভিওএ প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। ইউ এস এজেন্সি ফর গ্লোবাল মিডিয়ার অংশ হিসেবে ভিওএ পুরোপুরি আমেরিকান জনগনের অর্থায়নে পরিচালিত।

আইনগত ভাবে ভিওএর মিশন এবং সম্পাদনার স্বাধীনতা নিশ্চিত করা আছে। ওই আইনের ফলে ভিওএর সাংবাদিকরা কোন সরকারি কর্মকর্তা বা রাজনীতিকের প্রভাব, চাপ বা পাল্টা ব্যবস্থা গ্রহণ থেকে রক্ষা পান।

১৯৭৬ সালে প্রেসিডেন্ট জেরাল্ড আর ফোর্ড ভিওএ সনদে সাক্ষর করেন। ওই সনদে বলা হয়:

১. ভিওএ সবসময়ই খবরের নির্ভরযোগ্য এবং কর্তৃত্বপূর্ণ সূত্র হবে। ভিওএর সংবাদ হবে সঠিক, বস্তুনিষ্ঠ এবং সার্বিক।

২. ভিওএ, আমেরিকান সমাজের কোন বিশেষ অংশের নয়, পুরো আমেরিকার প্রতিনিধিত্ব করবে । সে কারণে ভিওএর পরিবেশনায়, উল্লেখযোগ্য ভাবে আমেরিকান চিন্তা ধারা ও প্রতিষ্ঠানগুলোর সুষম ও সর্বাঙ্গীণ প্রতিফলন থাকবে।

৩. ভিওএ, যুক্তরাষ্ট্রের নীতিমালা, সুস্পষ্ট ও কার্যকর ভাবে উপস্থাপন করবে। এছাড়াও ওই সব নীতিমালার বিষয়ে দায়িত্বপূর্ণ আলোচনা এবং মতামত পরিবেশন করবে ভিওএ ।

১৯৯৪ সালে যুক্তরাষ্ট্র কংগ্রেস আমেরিকান আন্তর্জাতিক সম্প্রচার আইন পাশ করে। এই আইনের অধীনে ভিওএর সাংবাদিকদের কাজ কর্তৃত্বপূর্ণ, সঠিক, বস্তুনিষ্ঠ, সর্বাঙ্গীণ, সুষম হতে হবে এবং তাতে আমেরিকার সাংস্কৃতিক ও সামাজিক ভিন্নতার প্রতিফলন থাকতে হবে।

২০১৬ সালে কংগ্রেস পুনরায়, জাতীয় প্রতিরক্ষা অনুমোদন আইনের অধীনে বলেন সংবাদ সংগ্রহ ও সম্প্রচারের কাজ নিরপেক্ষ ও বস্তুনিষ্ঠ হওয়া অব্যাহত রাখতে হবে।

সারা বিশ্বে, সংবাদ মাধ্যমের স্বাধীনতার আদর্শ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে, ভিওএর সাংবাদিকরা প্রতিদিন নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছেন।

ভিওএ

সংবাদ মাধ্যমের স্বাধীনতার প্রয়োজন রয়েছে

আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করুন

XS
SM
MD
LG