অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ভারতের বিদায়ী কোচ রবি শাস্ত্রী দায়িত্বে কতটা সফল ছিলেন? 


ওয়ার্ম আপ সেশনে খেলোয়াড়দের সঙ্গে ভারতের কোচ রবি শাস্ত্রী। (ফাইল ফটো- সায়িদ খান/এএফপি)

নামিবিয়ার বিপক্ষে ম্যাচের মধ্য দিয়ে ভারতের কোচ হিসেবে রবি শাস্ত্রীর মেয়াদ শেষ হলো। শাস্ত্রী-বিরাট কোহলি জুটি আইসিসি ট্রফি জিততে পারেনি ঠিকই, কিন্তু তাঁদের জুটি ব্যর্থ হয়েছে বলা যাবে না।

ভারতীয় দলের ব্যর্থতার কারণ হিসেবে শাস্ত্রীর কথা উঠছে। তিনি পুরো দলকে পরিচালনা করতে পারেননি। একজন কোচ হিসেবে ড্রেসিংরুমে থেকে কৌশলগত যে কাজ করতে হয়, সেটি করতে ব্যর্থ হয়েছেন রবি। সেই জন্যই তাঁর প্রবল সমালোচনা হচ্ছে।

২০১৭ সালের ১৩ জুলাই ভারতীয় দলের কোচ হিসেবে নিযুক্ত হয়েছিলেন শাস্ত্রী। তার আগে ২০১৪ সাল থেকে ভারতীয় দলের ডিরেক্টর ছিলেন তিনি।

কোচ হিসেবে তাঁর সময়কালে সাফল্য-ব্যর্থতা সবটাই মিলেমিশে রয়েছে। তাঁর কোচিংয়ে ভারত ৪৩টি টেস্ট খেলে ২৫টিতে জিতেছে। ১৩টি ম্যাচ হেরেছে। ৫টি ড্র হয়েছে।

কোচ শাস্ত্রীর অধীনে ৭৬টি ওয়ানডে ম্যাচ খেলে ৫১টি জিতেছে ভারত। ২২টি ম্যাচ হেরেছে। টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের ক্ষেত্রে আবার তাঁর কোচিংয়ে ৬৪টি ম্যাচ খেলে ৪২টি ম্যাচ জিতেছে। ১৮টি ম্যাচ হেরেছেন কোহলিরা। সব মিলিয়ে তাঁর সময় কালে মোট ১৮৩টি ম্যাচের মধ্যে ভারত ১১৮টি ম্যাচই জিতেছে ভারত। ৫৩টি ম্যাচ হেরেছে। ৫টি ম্যাচ ড্র হয়েছে।

শাস্ত্রীর ক্ষেত্রে জয়ের শতকরা ভাগ বেশি। কিন্তু তিনি আইসিসি ট্রফি জিততে পারেননি। অধিনায়ক কোহলিরও যা অভাব রয়েছে। এমনকি বলা হয়, শাস্ত্রীর কোচিংয়ের সময় ভারতীয় দলের ড্রেসিংরুমকে আপাত শান্ত মনে হলেও দলে দুটি গ্রুপে ভাগ হয়ে যায়। একটি কোহলির স্বপক্ষ গোষ্ঠী, আর অন্যটি কোহলি বিরোধী শিবির। বলা হয়, কোচ হিসেবে শাস্ত্রী এই বিবাদকে মেটানোর চেষ্টা করেননি, এটিও তাঁর একটি ব্যর্থতা।

XS
SM
MD
LG