অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বৃটিশ প্রধানমন্ত্রী তেরেসা মে অনেকটা নাটকীয়ভাবে আগাম নির্বাচনের তারিখ ঘোষণা করেছেন। জানিয়েছেন, আগামী ৮ই জুন এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। প্রধান বিরোধী দল লেবার পার্টি এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে। আগামীকাল বুধবার নির্বাচন সংক্রান্ত একটি প্রস্তাব সংসদে উত্থাপন করা হবে।

দীর্ঘ দিন থেকে আগাম নির্বাচন নিয়ে জল্পনা কল্পনা চলছিল। কিন্তু ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টি বরাবরই বলে আসছিল ২০২০ সনের আগে আগাম নির্বাচনের কোন সম্ভাবনা নেই।

তেরেসা মে ১০ ডাউনিং স্ট্রিটের সামনে দাঁড়িয়ে জাতির উদ্দেশে বলেন, বৃটেনের প্রয়োজন শক্তিশালী নেতৃত্ব। এজন্য আগাম নির্বাচন যথার্থ পদক্ষেপ। এটা জাতির স্বার্থের জন্য গুরুত্বপূর্ণ। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ব্রেক্সিট প্রশ্নে জনগণ ঐক্যবদ্ধ। কিন্তু হাউজ অব কমন্স দ্বিধা-বিভক্ত। এজন্য নির্বাচন জরুরি।

বৃটিশ বাংলাদেশীরা কিভাবে দেখছেন তেরেসা মে’র এই ঘোষণাকে? জানতে চেয়েছিলাম বাংলাদেশ ক্যাটারার্স এসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট পাশা খন্দকারের কাছে। তিনি বললেন, নির্বাচনের জন্য তেরেসা মে’র এটাই উপুক্ত সময়।

জনমত জরিপগুলো শাসক দলের পক্ষে। ইউগভ এর সর্বশেষ জনমত জরিপ অনুযায়ি বিরোধী লেবার পার্টি থেকে ২১ পয়েন্টে এগিয়ে আছে কনজারভেটিভ পার্টি। এই অবস্থায় তেরেসা মে খুব সহজেই উতরে যাবেন এমনটাই বলছেন পর্যবেক্ষকরা।

ওদিকে তেরেসা মে’র নির্বাচনের ঘোষণা দেয়ার পর বৃটিশ পাউন্ডের দর বেড়ে গেছে।
মতিউর রহমান চৌধুরী, লন্ডন

please wait

No media source currently available

0:00 0:01:43 0:00


XS
SM
MD
LG