অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

কাঠমান্ডুতে ইউএস বাংলার বিমান দুর্ঘটনা নিয়ে মানুষের মনে নানা প্রশ্ন


গত সোমবার ৭১ জন আরোহী নিয়ে বাংলাদেশের বেসরকারী বিমান সংস্থা ইউএস-বাংলার বিএস-২১১’ ফ্লাইটটি নেপালের কাঠমান্ডু ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের সময় বিধ্বস্ত হয়। সব মিলে ৫১ জন নিহত হন। বিমানের পাইলট, চার কেবিন ক্রুর সবাই নিহত হন দুর্ঘটনায়। নিহতদের মধ্যে ২৮ জন বাংলাদেশি।

এই দুর্ঘটনা নিয়ে মানুষের মনে নানা প্রশ্ন। কেনো ঘটলো? বিমানের কোনো ত্রুটি ছিল কিনা? বৈমানিকের কোনো ভুল ছিল কিনা? বিমান বন্দরের নিয়ন্ত্রন কেন্দ্রের কোনো ত্রুটি ছিলো কিনা ইত্যাদি। এই মুহুর্তে নিহতদের শোক, আহতদের সেবা এবং দুর্ঘটনার কারন অনুসন্ধান চলছে। ভবিষ্যতে যেনো এ ধরণের আর কোনো দুর্ঘটনা না ঘটে সেই কামনা করছি আমরা। এই দুর্ঘটনাটি নিয়ে এসব প্রশ্ন নিয়ে আজ আমরা আলোচনা করবো দুজন অবসরপ্রাপ্ত চৌকষ পাইলটের সঙ্গে। যোগ দিচ্ছেন ঢাকা থেকে ক্যাপ্টেন নাসিমুল হক। তিনি পাইলট এ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতিও। এবং এয়ার কমোডর (অব) ইশফাক ইলাহি চৌধুরী।

XS
SM
MD
LG