অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আগামী অর্থবছরে বাংলাদেশের প্রস্তাবিত বাজেটের পরিমাণ ৪ লাখ ৬৪ হাজার ৫৭৩ কোটি টাকা। অর্থমন্ত্রী আশা করছেন জিডিপি প্রবৃদ্ধির হার ৭.৮ শতাংশ বৃদ্ধি পাবে।

বাজেটে এনার্জি ড্রিংক, প্রসাধন সামগ্রী, সানস্ক্রিন, সানগ্লাস, আফটার শেভ লোশন, সিরামিক বাথটাব, ফিলামেন ল্যাম্প, পলিথিন, ফ্ল্যাটের রেজিস্ট্রেশন ফি দাম বাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়েছে।

দাম কমানোর প্রস্তাব করা হয়েছে রড, সিমেন্ট, হাইব্রিড গাড়ি, ক্যানসারের ওষুধ, টায়ার-টিউব তৈরির কাঁচামাল, কম্পিউটারের যন্ত্রাংশ ও কৃষিজমির রেজিস্ট্রেশন ফির।

বাজেটের পক্ষে বিপক্ষে নানা মতামত দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। আলোচনা সমালোচনা চলছেই। কেমন বাজেট হল, ইতিবাচক দিকগুলো কি কি, নেতিবাচক দিকগুলো কি কি এসব নিয়ে আলোচনায় অংশ নিচ।ছেন নিউইয়র্কের লং আইল্যান্ড ইউনিভার্সিটির অর্থনীতির অধ্যাপক ড. শাওকত আলী।

please wait

No media source currently available

0:00 0:38:36 0:00

XS
SM
MD
LG