অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

নাইজেরিয়ার সংঘাতপূর্ণ উত্তরাঞ্চলের মসজিদে হামলায় ১৬ জন নিহত  


নাইজেরিয়ার নাইজার রাজ্য

নাইজেরিয়ার উত্তরাঞ্চলের একটি গ্রামে বন্দুকধারীরা একটি মসজিদে হামলা চালায়। স্থানীয় এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন যে ঐ আক্রমণে ১৬ জন নামাজীনিহত হন এবং অন্যদের তারা অপহরণ করে নিয়ে যায়।

স্থানীয় সরকারের চেয়ারম্যান আলহাসান ইসা মাজাকুকা জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার নাইজার রাজ্যের মাশেগু এলাকার বা'আর গ্রামে কয়েক ঘন্টা ধরে হামলা চালানো হয়।

তিনি বলেন কয়েক ডজন আততায়ী মোটরসাইকেলে করে এসে গ্রামে ঢুকে মসজিদে নামাজীদের হত্যা ও লুটপাট করে।

নাইজেরিয়ার পুলিশ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছে তবে জানিয়েছে যে ঐ ঘটনায় মাত্র নয় জন নিহত হয়েছে। এই ধরনের হামলায় হতাহতের সংখ্যা কম করে দেখানোর জন্য অতীতে পুলিশের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে।

উত্তর-পশ্চিম এবং উত্তর-মধ্য নাইজেরিয়ায় সহিংসতা বেড়ে যাওয়ার পর এই আক্রমণ ছিল সাম্প্রতিকতম। সেখানকার সশস্ত্র দলগুলো প্রত্যন্ত অঞ্চলে লোকজনকে লক্ষ্যস্থির করে মুক্তিপণের জন্য বাসিন্দাদের হত্যা ও অপহরণ করছে।

এই সপ্তাহের শুরুতে নিশ্চিত করা হয় যে আফ্রিকার পশ্চিমাঞ্চলের দেশটির অশান্ত উত্তরাঞ্চলের ভিন্ন অংশে ২৩ জনের বেশী ভ্রমণকারীকে হত্যা করা হয়।

আক্রমণকারীদের বড় দল বেশিরভাগই ফুলানি জাতিগোষ্ঠীর যুবকদের নিয়ে গঠিত। ঐতিহ্যগতভাবে ঐ সব যুবক গবাদি পশুপালক হিসাবে কাজ করত এবং পানি এবং চারণভূমি দখল নিয়ে হাউসা কৃষক সম্প্রদায়ের সাথে তাদের কয়েক দশক ধরে দ্বন্দ্ব চলছে।

ক্রমবর্ধমানভাবে বন্দুকধারীরা সংগঠিত এবং সশস্ত্র হচ্ছে বলে মনে হচ্ছে তবে প্রকাশ্যে তারা কোন রাজনৈতিক লক্ষ্য বা উদ্দেশ্যের কথা ঘোষণা করেনি। নাইজেরিয়ার একজন গভর্নর সম্প্রতি বলেছেন যে ঐ ধরণের বেআইনী দলের সংখ্যা ১৫০ টিরও বেশি রয়েছে – যাদের নাম নেই বা পরিচিত কোন নেতাও নেই কিন্তু সম্প্রতি একটি আদালত তাদের সন্ত্রাসী সংগঠন হিসেবে ঘোষণা করেছে।

XS
SM
MD
LG