অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ভারতের সঙ্গে ভবিষ্যতেও একত্রে কাজ করতে উন্মুখ বাংলাদেশ–প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা


ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছবিটি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির টুইটার থেকে নেয়া। (ফাইল ফটো- এপি)

আগামী ৫০ বছর এবং তার পরেও শান্তিপূর্ণ ও সমৃদ্ধ একটি অঞ্চল গড়ে তুলতে ভারতের সঙ্গে একত্রে কাজ করতে বাংলাদেশ উন্মুখ বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবস উপলক্ষে দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে পাঠানো এক বার্তায় তিনি বলেন, “২০২১ সাল ছিল বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্কের জন্য একটি ঐতিহাসিক বছর, যা সর্বোচ্চ পর্যায়ে যুগান্তকারী ঘটনা।”

বাংলাদেশ সরকার ও জনগণের পক্ষ থেকে এবং নিজের পক্ষ থেকে শেখ হাসিনা ভারতের ৭৩তম প্রজাতন্ত্র দিবস উপলক্ষে মোদি ও ভারতের জনগণকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান।

বার্তায় শেখ হাসিনা বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী এবং বাংলাদেশ ও ভারতের কূটনৈতিক সম্পর্ক প্রতিষ্ঠার ৫০ বছর উদযাপনে মোদির ঢাকা সফরের কথা কৃতজ্ঞতার সঙ্গে স্মরণ করেন।

শেখ হাসিনা বলেন, “এই অনুষ্ঠানে আপনার উপস্থিতি উদযাপনে অতিরিক্ত উৎসাহ যোগ করেছে এবং আমাদের দুর্দান্ত দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ককে আরও এগিয়ে নিতে ভূমিকা রেখেছে।”

শেখ হাসিনা কৃতজ্ঞতার সঙ্গে স্মরণ করে বলেন, “১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় ভারত সরকার ও জনগণের সমর্থন একটি অনন্য সম্পর্কের ভিত্তি স্থাপন করেছিল।”

তিনি বলেন, “বিশ্বব্যাপী ৬ ডিসেম্বর 'মৈত্রী দিবস' হিসেবে যৌথ উদযাপন হয়। ১৯৭১ সালের এই দিনে বাংলাদেশকে একটি সার্বভৌম ও স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছিল ভারত।”

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “আমাদের দুই দেশের মধ্যে ঘনিষ্ঠ বন্ধুত্ব, সহযোগিতা ও আস্থার সম্পর্ক সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বিকাশ লাভ করেছে এবং দৃঢ় থেকে দৃঢ়তর হয়েছে।”

তিনি বলেন, “এই আনন্দের উপলক্ষ বিশেষ হোক। কারণ ভারতও তাদের স্বাধীনতার ৭৫ বছর উপলক্ষে 'আজাদিকা অমৃত মহোৎসব' উদযাপন করছে।”

XS
SM
MD
LG