অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে জাতিসংঘ প্রতিনিধির কার্যকর ভূমিকা চায় বাংলাদেশ


আশ্রয়ের সন্ধানে মিয়ানমার থেকে জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত কিছু সংখ্যক রোহিঙ্গা। (ছবি- ইউএনবি)

মিয়ানমার থেকে জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের দেশটিতে প্রত্যাবাসনের অগ্রগতি না হওয়ায় হতাশা প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ। এর পাশাপাশি এ সংকটের “টেকসই সমাধান” খুঁজে বের করতে কার্যকর ভূমিকা রাখতে মিয়ানমারে জাতিসংঘের নবনিযুক্ত বিশেষ প্রতিনিধি নোলিন হেইজারকে আহ্বান জানিয়েছে।

মঙ্গলবার (২৫ জানুয়ারি) পররাষ্ট্রসচিব মাসুদ বিন মোমেন মিয়ানমারে জাতিসংঘ মহাসচিবের বিশেষ প্রতিনিধির সঙ্গে ভার্চ্যুয়াল বৈঠক করে এ আহ্বান জানান।

পররাষ্ট্রসচিব হতাশা প্রকাশ করে বলেন, “সংকটের পঞ্চম বছরে বাংলাদেশ এখনো ১০ লাখের বেশি জোরপূর্বক বাস্তুচ্যুত মিয়ানমারের নাগরিকদের আশ্রয় দেওয়ায় একাধিক চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করছে।”
তিনি বলেন, “বাংলাদেশে রোহিঙ্গাদের দীর্ঘায়িত উপস্থিতি এ অঞ্চলে মানব ও মাদক পাচারসহ নিরাপত্তা সমস্যা তৈরি করছে।”

১০ লাখের বেশি নির্যাতিত মিয়ানমারের নাগরিককে আশ্রয় দেওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান জাতিসংঘের বিশেষ প্রতিনিধি।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, রোহিঙ্গা সমস্যা তার এজেন্ডায় শীর্ষে থাকবে বলে আশ্বস্ত করেছেন বিশেষ প্রতিনিধি।
নোলিন হেইজারকে গত বছরের অক্টোবরে মিয়ানমারে জাতিসংঘ মহাসচিবের বিশেষ প্রতিনিধি হিসেবে নিযুক্ত করা হয়। তিনি ক্রিস্টিন শ্রেনার বার্গেনারের স্থলাভিষিক্ত হন।

XS
SM
MD
LG