অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

নরসিংদীর রায়পুরায় ইউপি নির্বাচন পরবর্তী সংঘর্ষে নিহত ২, আহত ২০


পঞ্চম ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে বাংলাদেশের মুন্সিগঞ্জের একটি নির্বাচনী কেন্দ্রে ভোটারদের লাইন। (ফাইল ফটো- মাহমুদ হোসেন অপু/ এপি)

নরসিংদীর রায়পুরায় অনুষ্ঠিত ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে দুজন নিহত হয়েছেন। রবিবার (৩০ জানুয়ারি) সকালে উপজেলার বাঁশগাড়ী ইউনিয়নের খেয়াঘাট আমতলিতে এ সংঘর্ষের সময় টেটা ও গুলিবিদ্ধ হয়ে কমপক্ষে ২০ জন আহত হয়েছেন।

নিহত দুজন হলেন- ওই ইউনিয়নের মানিক মিয়ার ছেলে রুবেল মিয়া (২৬) ও বাবুল মিয়ার ছেলে মামুন মিয়া (৩০)।

জানা গেছে, বাঁশগাড়ী ইউনিয়নে অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে বিজয়ী চেয়ারম্যান জাকির হাসান রাতুল ও সাবেক চেয়ারম্যান কাজী আশরাফুল হকের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। জাকির হাসান রাতুল নির্বাচিত হওয়ার পর সাবেক আশরাফুল হকের সমর্থকেরা দুই মাস ধরে এলাকা ছাড়া ছিল।

এরই জের ধরে রবিবার সকালে আশরাফুল হকের সমর্থকরা এলাকায় প্রবেশ করতে চাইলে জাকির গ্রুপের লোকজন এতে বাধা দেয়। এ সময় উভয় পক্ষের মধ্যে টেটাযুদ্ধ ও গোলাগুলি শুরু হয়।

এ সময় মাথায় গুলিবিদ্ধ হয়ে রুবেল মিয়া নিহত হন। অন্য আহতদের নরসিংদী সদর হাসপাতালসহ বিভিন্ন প্রাইভেট ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। নিহত রুবেলের লাশ নরসিংদী সদর হাসপাতালে রয়েছে।

অপর দিকে এ ঘটনায় আহত মামুন মিয়াকে বাঞ্চারামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়ার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

রায়পুরা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আতাউর রহমান জানান, সংঘর্ষে রুবেল মিয়া নামে একজন নিহত হয়েছেন বলে আমরা নিশ্চিত হয়েছি। অপরজন বাঞ্চারামপুর এলাকায় মারা যাওয়ার খবর পেলেও নিশ্চিত হতে পারিনি। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

XS
SM
MD
LG