অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

কুষ্টিয়ায় গণপিটুনিতে একজন নিহত–কুমিল্লায় ব্যবসায়ীকে গলা কেটে হত্যা


হত্যার প্রতীকী ছবি। (ছবি- অ্যাডোবে স্টক)

কুষ্টিয়ায় গণপিটুনিতে একজন ও অপর একজন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। অন্যদিকে কুমিল্লায় গলা কেটে এক ব্যবসায়ীকে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

কুষ্টিয়ায় গলপিটুনির ঘটনা ঘটে মিরপুর উপজেলার বারুইপাড়া ইউনিয়নের চুনিয়াপাড়া গ্রামে। সোমবার (৩১ জানুয়ারি) ভোরে সংঘটিত এ ঘটনায় নিশান (৩৭) নিহত হন। নিশান কুষ্টিয়া সদর উপজেলার মিলপাড়ার বাসিন্দা। আহত ব্যক্তির নাম জয়নাল (৩৮)।

কুষ্টিয়ার মিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম মোস্তফা জানান, সোমবার ভোরের দিকে কয়েকজন ওই গ্রামে যান। তারা ভ্যান চুরির সময়ে গ্রামের লোকজন বিষয়টি টের পেলে তাদেরকে ধাওয়া করে। এ সময় কয়েকজন দৌড়ে পালিয়ে যায় এবং দুজন জনতার হাতে ধরা পড়ে। এক পর্যায়ে জনতার গণপিটুনিতে ঘটনাস্থলে একজন নিহত এবং অপরজন গুরুতর আহত হন।

ওসি জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে আহত জয়নালকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য মিরপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন এবং নিহত নিশানকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য প্রেরণ করে।

কুমিল্লায় বাসায় ঢুকে ব্যবসায়ীকে গলা কেটে হত্যা

কুমিল্লা মহানগরীর নুরপুর চৌমুহনী এলাকায় নিজ বাসায় গলা কেটে এক ব্যবসায়ীকে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। রবিবার (৩০ জানুয়ারি) রাত ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত গোলাম রাফি সারোয়ার ওই এলাকার মৃত আনোয়ার হোসেনের ছেলে।

পরিবারের বরাত দিয়ে কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সহিদুর রহমান বলেন, “রাফি পেশায় মোবাইল ফেক্সিলোডের ব্যবসায়ী। তিনি শনিবার তার মা সৈয়দা আক্তারের সঙ্গে এক আত্মীয়ের বাসায় গিয়ে রাতে একা বাসায় চলে আসেন। রাতে তিনি একাই বাসায় ছিলেন। রবিবার রাত ৯টার দিকে তার মা বাসায় ফিরে ছেলের গলাকাটা মরদেহ দেখতে পান। খবর পেয়ে রাত ১০টার দিকে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহ উদ্ধার করে।”

ওসি বলেন, “এখনো হত্যার মোটিভ জানা যায়নি। হত্যাকাণ্ডের কারণ খতিয়ে দেখা হচ্ছে।”

এদিকে, সিআইডির ক্রাইমসিন ঘটনাস্থল থেকে বেশ কিছু আলামত জব্দ করেছে।

XS
SM
MD
LG