অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

লখিমপুরে কৃষক হত্যায় জামিন মন্ত্রীপুত্র আশিস মিশ্রর, ক্ষুব্ধ কৃষকরা


আশিস মিশ্র

জামিন পেলেন উত্তরপ্রদেশের লখিমপুর খেরিতে কৃষকদের গাড়ি চাপা দিয়ে খুনের চেষ্টায় অভিযুক্ত আশিস মিশ্র। উত্তরপ্রদেশে বিধানসভা নির্বাচন শুরুর দিনেই তিনি জামিন পেলেন।

তবে এখনই মন্ত্রীপুত্র জেল থেকে ছাড়া পাচ্ছেন না৷ কৃষকদের আইনজীবী মহম্মদ আমন জানিয়েছেন, আশিস মিশ্র বেশ কয়েকটি ধারায় জামিন পেয়েছেন৷ কিন্তু দু’টি মূল ধারায় এখনও তিনি জামিন পাননি৷ ওই দু’টি ধারায় জামিন না পাওয়া পর্যন্ত আশিস মিশ্রকে জেলেই থাকতে হবে৷ কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর ছেলে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১৪৭, ১৪৮, ১৪৯, ৩০৭, ৩২৬, ৪২৭ এবং অস্ত্র আইনে জামিন পেয়েছেন৷ কিন্তু তার বিরুদ্ধে ৩০২ এবং ১২০বি ধারাতেও মামলা রয়েছে৷ এর মধ্যে ৩০২ হল খুনের ধারা৷ ১২০বি হল অপরাধমূলক ষড়যন্ত্র৷ এই দু’টি ধারায় হাইকোর্ট জামিন দেয়নি৷

মাস চারেক আগে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অজয় মিশ্রর ছেলে আশিসের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছিল, লখিমপুর খেরিতে কৃষকদের প্রতিবাদ-আন্দোলন চলার সময়ে তাদের গাড়ি চাপা দিয়ে খুনের চেষ্টা করেছিলেন আশিস। সেই মামলায় এত দ্রুত জামিন মেলায় প্রশ্নের মুখে উত্তরপ্রদেশের আইন ব্যবস্থা। তার উপর নির্বাচনের প্রথম দফার দিনই কেন এই জামিন, সে প্রশ্নও উঠেছে।

এই ঘটনায় নিহত ১৯ বছরের এক কৃষক গুরুবিন্দর সিংয়ের বাবা সুখবিন্দর সিং মন্তব্য করেছেন, "এত তাড়াতাড়ি ওর জামিন পাওয়া ভাল কিছু হল না। আমাদের আর কোনও আশা রইল না এই সরকার, এই প্রশাসনের ওপর।"

অন্যদিকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অজয় মিশ্রকে পদ থেকে সরানোর যে দাবি কৃষকরা করেছিলেন, তাও এখনও পূরণ হয়নি। সুখবিন্দর বলেন, "মোদীজি একের পর এক জুমলা দিচ্ছেন। কিন্তু উনি এখনও মন্ত্রীকে সরাতে পারলেন না।"

এলাহাবাদ হাইকোর্টের লখনউ বেঞ্চে গতকাল, বৃহস্পতিবার আশিসের জামিন মঞ্জুর হয়। গত ৯ অক্টোবর তিনি গ্রেফতার হয়েছিলেন। তার পরে নিম্ন আদালতে তার জামিনের আবেদন খারিজ হয়েছিল। তাই তিনি উচ্চ আদালতে আবেদন করেন।

আশিসের আইনজীবী সলিল কুমার শ্রীবাস্তব জানিয়েছেন, হাইকোর্টে জামিনের শুনানি চলার সময়ে অনেক বিষয় জানানো হয় আদালতে। তিনি দাবি করেন, তার মক্কেল আশিস মিশ্রকে মিথ্যাভাবে ফাঁসানো হয়েছে। কারণ তিনি সেইসময় ঘটনাস্থলে ছিলেনই না। প্রমাণের অভাবেই আশিস মিশ্রকে আদালত জামিন দিয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

ঘটনাটি ঘটেছিল গত ৩ অক্টোবর। লখিমপুর খেরিতে সংঘর্ষের জেরে নিহত হন আট জন। তাদের মধ্যে চারজন কৃষককে গাড়ি চাপা দিয়ে মারার অভিযোগ ওঠে। দাবি করা হয়, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অজয় মিশ্রর গাড়িতেই ঘটেছে এই ঘটনা, সে সময়ে গাড়ি চালাচ্ছিলেন তার ছেলে আশিস মিশ্র। তিনটি এসইউভি গাড়ির কনভয় ধাক্কা মারা কৃষকদের মিছিলে। তার পরে ঘাতক গাড়িটি পালিয়ে যায়। এর পরেই পাল্টা খেপে ওঠে কৃষকরা। তারাও দুই বিজেপি কর্মী, তাদের গাড়ির চালক ও এক সাংবাদিককে খুন করে বলে অভিযোগ ওঠে।

ঘটনার তদন্তে নেমে আদালতের নির্দেশে সিট গঠন করে উত্তরপ্রদেশ সরকার। এর পরে আশিস-সহ মোট ১৩ জনকে গ্রেফতার করা হয় তদন্তকারীদের তরফে। গত ৩ জানুয়ারি দাখিল করা হয় চার্জশিটও।

XS
SM
MD
LG