অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

৬টি আফ্রিকান দেশ কোভিড টিকা উৎপাদনের প্রযুক্তি পেল


ইউ আফ্রিকা সামিট শেষে ছবি তোলার জন্য পোজ দিচ্ছেন উপস্থিত ৯ নেতা। ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২২।

প্রথম আফ্রিকান দেশ হিসেবে মিশর, কেনিয়া, নাইজেরিয়া, সেনেগাল, দক্ষিণ আফ্রিকা এবং তিউনিসিয়া বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা থেকে এমআরএনএ তৈরির জন্য প্রয়োজনীয় প্রযুক্তি পেয়েছে। কোভিড-১৯- প্রতিরোধে ব্যবহৃত দুটি ভ্যাকসিন হলো এমআরএনএ ভ্যাকসিন।

শুক্রবার ব্রাসেলসে ইউরোপীয় ইউনিয়ন-আফ্রিকান ইউনিয়ন যৌথ শীর্ষ সম্মেলনে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)’র মহাপরিচালক ড. টেড্রোস আধানম ঘেব্রেয়েসাস এই পুরস্কার ঘোষণা করেন।

টেড্রস বলেছেন" বিশ্বব্যাপী গণ পণ্য সরবরাহের জন্য কয়েকটি সংস্থার ওপর নির্ভরশীলতা যে কত সীমিত এবং বিপজ্জনক, কোভিড মহামারীর মতো অন্য কোনো ঘটনাই তা দেখিয়ে দেয়নি।" তিনি আরও বলেন, "মাঝারি থেকে দীর্ঘমেয়াদে জরুরি স্বাস্থ্য পরিস্থিতি মোকাবেলা করার এবং সর্বজনীন স্বাস্থ্য সুরক্ষা পৌঁছানোর সর্বোত্তম উপায় হলো তাদের প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত ন্যায়সঙ্গত ভাবে প্রয়োজনীয় স্বাস্থ্য পণ্যগুলো তৈরি করার জন্য সমস্ত অঞ্চলের সক্ষমতা উল্লেখযোগ্যভাবে বৃদ্ধি করা।"

আফ্রিকা মহাদেশের জনসংখ্যার শতকরা ৮০ ভাগেরও বেশি এখনও কোভিড টিকার একটি ডোজও গ্রহণ করতে পারেনি। টেড্রস বলেন, "এই বৈষম্যের কারণ হলো বিশ্বব্যাপী কয়েকটি উচ্চ আয়ের উচ্চ আয়ের দেশে টিকা উৎপাদন কেন্দ্রীভূত।"

এদিকে ওয়াশিংটন পোস্ট প্রতিবেদনে বলেছে যে, তারা একটি নথি পেয়েছে যাতে বলা হয়েছে, বাইডেন প্রশাসন করোনা ভাইরাস টিকার প্রচারের জন্য ১১টি আফ্রিকান দেশে ২৫কোটি ডলারেরও বেশি “ব্যয় করবে”। "উচ্চ সহায়তা " পাওয়ার জন্য নির্ধারিত দেশগুলো হলো: অ্যাঙ্গোলা, আইভরি কোস্ট, এসওয়াতিনি (পূর্বনাম সোয়াজিল্যান্ড), ঘানা, লেসোথো, নাইজেরিয়া, সেনেগাল, দক্ষিণ আফ্রিকা, তানজানিয়া, উগান্ডা এবং জাম্বিয়া।

গত শুক্রবারে জনস হপকিন্স করোনাভাইরাস রিসোর্স সেন্টার জানিয়েছে, তাদের রেকর্ড অনুযায়ী, বিশ্বব্যাপী ৪২ কোটিরও বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছে, প্রায় ৬০ লাখ মানুষের মৃত্যু হয়েছে। তারা আরও জানিয়েছে বিশ্বব্যাপী ১৩০ কোটি টিকা দেয়া হয়েছে।

XS
SM
MD
LG