অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ডি-৮ ভুক্ত দেশগুলোর শক্তিশালী অর্থনৈতিক জোট হওয়ার সক্ষমতা রয়েছে—প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা


ডি–৮ এর মহাসচিব ইসিয়াকা আবদুল কাদির ইমামের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার বৈঠক। (ছবি- ইউএনবি)

বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ডি-৮ ভুক্ত দেশগুলোর একসঙ্গে শক্তিশালী অর্থনৈতিক জোটে পরিণত হওয়ার সক্ষমতা রয়েছে। বুধবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) প্রধানমন্ত্রীর সরকারি বাসভবন গণভবনে ডি–৮ এর মহাসচিব ইসিয়াকা আবদুল কাদির ইমামের সঙ্গে বৈঠকালে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

বৈঠকের পর প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সেক্রেটারি ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

তিনি জানান, বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ডি-৮ ভুক্ত দেশগুলো একসঙ্গে মিলে একটি শক্তিশালী অর্থনৈতিক জোটে পরিণত হওয়ার সক্ষমতা রয়েছে।

বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী ও ডি-৮ এর মহাসচিব সদস্য রাষ্ট্রগুলোর মধ্যে বাণিজ্য প্রসারের অপার সম্ভাবনাকে কাজে লাগানোর জন্য অগ্রাধিকারমূলক বাণিজ্য চুক্তি বাস্তবায়িত করার প্রয়োজনীয়তার কথা পুনর্ব্যক্ত করেন।

তারা ব্যবসা, অর্থনীতি, বাণিজ্য, পরিবহন, কৃষি, পর্যটন, শিক্ষা এবং শক্তির মতো ডি-৮ এর থ্রাস্ট সেক্টর অন্বেষণের প্রয়োজনীয়তার ওপর জোর দিয়েছেন।

আলোচনাকালে ডি-৮ মহাসচিব আইসিটি খাতে বাংলাদেশের অগ্রগতির প্রশংসা এবং বাংলাদেশের বিশেষায়িত অর্থনৈতিক অঞ্চলের প্রতি গভীর আগ্রহ প্রকাশ করেন।

বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ জিয়াউদ্দিন এবং প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব ড. আহমদ কায়কাউস উপস্থিত ছিলেন।

রাষ্ট্রদূত ইসিয়াকা আবদুল কাদির ইমাম ১ জানুয়ারি ডি-৮ এর মহাসচিবের দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

ডি-৮ সদস্য দেশগুলো হলো-বাংলাদেশ, মিসর, ইন্দোনেশিয়া, ইরান, মালয়েশিয়া, নাইজেরিয়া, পাকিস্তান ও তুরস্ক।

বিমানের সুবর্ণজয়ন্তীর স্মারক ডাকটিকিট অবমুক্ত করলেন প্রধানমন্ত্রী

বাংলাদেশের রাষ্ট্রায়ত্ত বিমান সংস্থা বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে একটি বিশেষ স্মারক ডাকটিকিট, একটি উদ্বোধনী খাম ও একটি ডেটা কার্ড অবমুক্ত করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

বুধবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) প্রধানমন্ত্রী তার সরকারি বাসভবন গণভবনে এক অনুষ্ঠানে ১০ টাকার স্মারক ডাকটিকিট, ১০ টাকার উদ্বোধনী খাম ও পাঁচ টাকার এই ডেটা কার্ড উন্মোচন করেন।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে প্রধানমন্ত্রীকে একটি স্যুভেনির প্রদান করা হয়।

অনুষ্ঠানে ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী, ডাক ও টেলিযোগাযোগ সচিব মো. খলিলুর রহমান এবং বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন সচিব মো. মোকাম্মেল হোসেন প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

স্মারক ডাকটিকিট, উদ্বোধনী খাম ও ডেটা কার্ড ঢাকা জিপিওর ফিলাটেলিক ব্যুরো থেকে বিক্রি করা হবে এবং পরবর্তীতে সারা দেশের অন্য জিপিও এবং প্রধান পোস্ট অফিসগুলোতেও পাওয়া যাবে।

XS
SM
MD
LG