অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাংলাদেশে ক্লাসে ফিরল প্রাথমিকের শিক্ষার্থীরা


ক্লাসে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করছে শিক্ষার্থীরা। (ফাইল ফটো- রয়টার্স)
ক্লাসে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করছে শিক্ষার্থীরা। (ফাইল ফটো- রয়টার্স)

বাংলাদেশে দীর্ঘদিন প্রাথমিক বিদ্যালয় বন্ধ থাকার পর বুধবার (২ মার্চ) স্বাস্থ্যবিধি মেনে সশরীরে ক্লাসে যোগ দিয়েছে প্রাথমিকের শিক্ষার্থীরা।

করোনার কারণে প্রায় দেড় মাস বন্ধ থাকার পর মঙ্গলবার থেকে খুলে দেওয়া হয়েছে প্রাথমিক স্তরের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো।

স্কুলগুলোর সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ তাদের শিক্ষার্থীদের সকলের জন্য মাস্ক নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য বিধি অনুসরণ করে ক্লাসে প্রবেশের অনুমতি দিয়েছে।

বাংলাদেশে করোনা পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হওয়ার প্রেক্ষিতে সরকার ১৮ ফেব্রুয়ারি ঘোষণা দেয় যে, ১ মার্চ থেকে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পুনরায় সশরীরে ক্লাস শুরু করা হবে। ১ মার্চ খোলার ঘোষণা দেওয়া হলেও সেদিন পবিত্র শবেমেরাজ হওয়ায় তা এক দিন পিছিয়ে ২ মার্চ থেকে ক্লাস শুরু।

এর আগে দেশের সব মাধ্যমিক, উচ্চ মাধ্যমিক ও বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ২২ ফেব্রুয়ারি থেকে সশরীরে ক্লাস শুরু হয়েছে।

গত ২১ জানুয়ারি সরকার এক ঘোষণায় করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রনের বৃদ্ধির কারণে ২১ জানুয়ারি থেকে ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বাংলাদেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে। পরে ২০ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত এ ঘোষণা বাড়ানো হয়।

২২ জানুয়ারি শিক্ষা মন্ত্রণালয় স্কুল ও কলেজের জন্য অনলাইন ক্লাস পুনরায় চালু সহ ১১-দফা নির্দেশনা জারি করে।

এ ছাড়া মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের জোনাল অফিস, জেলা শিক্ষা অফিস, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিস, স্থানীয়দের সঙ্গে সমন্বয় করে স্বাস্থ্য নির্দেশিকা অনুসরণ করে করোনার বিরুদ্ধে ১২ থেকে ১৭ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের টিকাদান অব্যাহত রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়।

XS
SM
MD
LG