অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

“যুদ্ধ নয়, শান্তি চাই”—ইউক্রেন নিয়ে প্রশ্নের জবাবে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেন


সংবাদ সম্মেলনে কথা বলছেন বাংলাদেশ সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন। (ছবি- ইউএনবি)

বাংলাদেশ সরকারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, “আমরা (ইউক্রেন সংকট) সমাধানের জন্য কূটনৈতিক উপায়ে শান্তি ও আলোচনা চাই।”

রবিবার (৬ মার্চ) রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ মন্তব্য করেন।

জাতিসংঘে ইউক্রেন ইস্যুতে বাংলাদেশ কেন ভোটদানে বিরত থাকল সাংবাদিকেরা জানতে চাইলে আব্দুল মোমেন বাংলাদেশের অবস্থান ব্যাখা করে বলেন, “বাংলাদেশ শান্তি চায়, যুদ্ধ চায় না।”

সম্প্রতি জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে একটি প্রস্তাবে ভোট দেওয়া থেকে বিরত থাকা ৩৫টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশও ছিল।

তিনি বলেন, “বাংলাদেশ বলেছে যে ইউক্রেনে সাম্প্রতিক সহিংসতা বৃদ্ধির জন্য তারা গভীরভাবে উদ্বিগ্ন এবং এই ধরনের সহিংসতা সমগ্র অঞ্চলের শান্তি ও স্থিতিশীলতাকে মারাত্মকভাবে প্রভাবিত করবে। বাংলাদেশ সব পক্ষকে সর্বোচ্চ সংযম, শত্রুতা বন্ধ করার এবং কূটনীতি ও সংলাপে ফিরে আসার মাধ্যমে এই সংকট সমাধানের চেষ্টা করার আহ্বান জানিয়েছে।”

ইউক্রেন ইস্যুতে বাংলাদেশের অবস্থানে কোনো পরিবর্তন হচ্ছে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন, “অবস্থান অপরিবর্তিত রয়েছে”।

আব্দুল মোমেন আরও বলেন, “কোথাও কোনো অস্থিতিশীলতা দেখা দিলে অন্য দেশের মতো বাংলাদেশও সমস্যায় পড়বে।”

হাদিসুরের লাশ দেশে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চলছে

সংবাদ সম্মেলনে আব্দুল মোমেন বলেছেন, রকেট হামলায় নিহত বাংলার সমৃদ্ধি জাহাজের ইঞ্জিনিয়ার মো. হাদিসুর রহমানের লাশ ইউক্রেনে সংরক্ষণ করা হয়েছে। তার লাশ দেশে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চলছে।

তিনি বলেন, “লাশটি ইউক্রেনের একটি নিরাপদ স্থানে রাখা হয়েছে, বাংলাদেশে আনতে সময় লাগতে পারে।”

আব্দুল মোমেন আরও বলেন, “বাংলাদেশি জাহাজ বাংলার সমৃদ্ধির ২৮ জন ক্রু সদস্য এখন রোমানিয়ার বুখারেস্টে রয়েছেন। গত রাত থেকে তারা সেখানে একটি হোটেলে অবস্থান করেছে।”

এর আগে ইউক্রেনের একটি বন্দরে আটকে থাকা বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের (বিএসসি) জাহাজে রকেট হামলায় বাংলার সমৃদ্ধির থার্ড ইঞ্জিনিয়ার মো. হাদিসুর রহমান (৪৭) নিহত হন।

যুদ্ধবিধ্বস্ত ইউক্রেন থেকে জাহাজের অন্য ২৮ জন ক্রু নিরাপদে রোমানিয়ায় পৌঁছেছে এবং তারা শিগগিরই দেশে ফিরে আসবে।

এদিকে বৃহস্পতিবার ঢাকার রুশ দূতাবাস নিহত হাদিসুর রহমানের প্রিয়জনদের প্রতি গভীর সমবেদনা প্রকাশ করে বলেছে, বন্দর থেকে বাংলাদেশি জাহাজের নিরাপদ ফিরে আসা নিশ্চিত করতে রাশিয়ান পক্ষ “সব ধরনের প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে”।

ডিটেনশন সেন্টারে পাঁচজন

সংবাদ সম্মেলনে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেন পাঁচ বাংলাদেশির পোস্ট করা ভিডিও প্রসঙ্গে বলেন, তারা তথ্য সংগ্রহ করছেন।

তিনি বলেন, “এখন পর্যন্ত আমরা যা জানতে পেরেছি তা হলো যে, তারা খেলা দেখতে রাশিয়ায় গিয়েছিল এবং রাশিয়া থেকে অন্য কোথাও যাওয়ার পরিকল্পনা করেছিল।”

আব্দুল মোমেন বলেন, “ইউক্রেন সরকার তাদের অবৈধ অভিবাসী হিসেবে আটক করেছিল। পরে তাদের আটক কেন্দ্রে রাখা হয়। তারা এখনো সেখানে (আটক কেন্দ্র)। আমরা আরও তথ্য পাওয়ার চেষ্টা করছি। আমরা আরও তথ্য পেলেই তাদের ফিরিয়ে আনার জন্য আমাদের প্রচেষ্টা শুরু করব।”

এর আগে শনিবার পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ভিডিওটি দেখে তারা তাদের সম্পর্কে জানতে পেরেছেন।

আব্দুল মোমেন বলেন, “আমরা দায়িত্বে থাকা আমাদের রাষ্ট্রদূতের সঙ্গে কথা বলেছি। আমরা তাদের তথ্য নেওয়ার চেষ্টা করছি এবং তাদের বক্তব্যগুলো সংরক্ষণ করার চেষ্টা করছি। কারণ তারা দাবি করেছে যে, ইউক্রেনীয় সরকার জোর করে তাদের মানব ঢাল হিসাবে সেখানে রেখেছে।”

XS
SM
MD
LG