অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রাশিয়ার প্রেসিডেন্টের সাথে মস্কোতে সাক্ষাৎ করলেন ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী


ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেট ও রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের বৈঠক। অক্টোবর ২২, ২০২১। (ফাইলে ছবি- এপি)

ইউক্রেনের বিরুদ্ধে রাশিয়ার যুদ্ধের মধ্যেই, দেশ দুইটির মাঝে মধ্যস্থতার চেষ্টা করছে ইসরায়েল। এটি যুদ্ধের দ্বিতীয় সপ্তাহ।

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী নাফতালি বেনেট রবিবার রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সাথে টেলিফোনে আলাপ করেছেন বলে সংবাদ প্রতিবেদন থেকে জানা যায়। সংবাদ সংস্থা রয়টার্স, ফোনালাপটির ক্রেমলিনের প্রতিলিপি উদ্ধৃত করে জানায় যে, আলাপকালে উভয় নেতাই ইউক্রেনে রাশিয়ার “বিশেষ সামরিক অভিযান” বিষয়ে আলোচনা করেন।

রাশিয়ার প্রেসিডেন্টের সাথে সাক্ষাৎ করতে বেনেট মস্কো যাওয়ার একদিন পরই ফোনালাপটির খবর পাওয়া যায়। গত মাসে রাশিয়ার ইউক্রেন আক্রমণের পর থেকে বেনেটই প্রথম এমন বিদেশী নেতা, যিনি পুতিনের সাথে সামনাসামনি আলাপ করলেন।

একজন অর্থোডক্স ইহুদি বেনেট ইহুদিদের সাপ্তাহিক স্যাবাথ-এর দিনে সফরটি করেন। দিনটিতে সাধারণত সফর করা ধর্মীয়ভাবে নিষেধ। তবে, ইসরায়েলের ইহুদী ধর্মযাজকরা বলেন যে, জীবন বাঁচানোর জন্য স্যাবাথের এই নিয়ম ভঙ্গ করা যায়।

অপরদিকে, টেলিভিশনে প্রচারিত এক বক্তব্যে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেন্সকি, ইউক্রেনকে সমর্থন করার জন্য ইসরায়েলকে ধন্যবাদ জানান। তবে তিনি বেনেটের রাশিয়া সফরের বিষয়টি উল্লেখ করেননি। জেলেন্সকি জানান যে, তিনি শনিবার যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সাথে আলাপ করেছেন এবং বেনেটের সাথেও একাধিকবার আলাপ হয়েছে তার। জেলেন্সকি নিজেও ইহুদি ধর্মাবলম্বী।

রাশিয়া এবং ইউক্রেন, উভয় দেশের সাথেই ইসরায়েলের সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক রয়েছে। ইউক্রেন থেকে পালিয়ে আসা হাজার হাজার ইহুদি শরণার্থীদের গ্রহণ করেছে ইসরায়েল। ইসরায়েলের সরকার জানিয়েছে যে, তারা আরও হাজার হাজার শরণার্থীর জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে।

তবে, ইউক্রেনকে সামরিক সহায়তা প্রদানের প্রস্তাব করেনি ইসরায়েল।

ইসরায়েলের পররাষ্ট্র মন্ত্রক বলছে তাদের ধারণা, ইউক্রেনে ২,০০০-এর মত ইসরায়েলের নাগরিক এখনও থেকে গিয়েছে এবং ইসরায়েলের সরকার তাদেরকে দেশটি থেকে বের করে আনার ব্যাপারে কাজ করছে।

XS
SM
MD
LG