অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রাশিয়ার আগ্রাসনের বিরুদ্ধে আরও বিক্ষোভের আহ্বান জানালেন বিরোধী নেতা নাভালনি


মস্কোয় এক র‍্যালিতে রাশিয়ার বিরোধী নেতা অ্যালেক্সেই নাভালনি। (ফাইল ছবি- রয়টার্স)

রাশিয়ার কারাবন্দী বিরোধী নেতা অ্যালেক্সেই নাভালনি আবার ইউক্রেনের বিরুদ্ধে উষ্কানি ছাড়াই মস্কোর যুদ্ধের বিরুদ্ধে বিক্ষোভের আহ্বান জানিয়ে বলেছেন যে, যুদ্ধটির বিষয়ে রাশিয়ার মানুষের প্রতিক্রিয়া “একবিংশ শতাব্দীর ইতিহাসে রাশিয়ার অবস্থান অনেকাংশেই নির্ধারণ করবে”।

নাভালনি ৮ মার্চ টুইটারে লিখেন যে, রাশিয়ার অভ্যন্তরে যুদ্ধটির বিরুদ্ধে ক্ষোভ পুঞ্জিভুত হচ্ছে এবং “সমাজে যুদ্ধবিরোধী মনোভাবের গতি বৃদ্ধি পেতে থাকবে, তাই যুদ্ধবিরোধী বিক্ষোভ কোন অবস্থাতেই বন্ধ করা উচিত হবে না”। ক্রেমলিনের সমালোচক নাভালনি বর্তমানে আড়াই বছরের কারাদন্ড ভোগ করছেন। তার সমর্থক ও পশ্চিমা আইন বিশ্লেষকদের মতে তার বিরুদ্ধে আনীত জালিয়াতির অভিযোগগুলো বানোয়াট।

তিনি পরপর কয়েকটি টুইটে আরও লিখেন, “এটি একরকম বিষয় হতো যদি পুতিন রাশিয়ার নাগরিকদের পূর্ণ সমর্থন নিয়ে ইউক্রেনের বেসামরিক মানুষকে হত্যা করতো এবং জীবনধারণের জন্য গুরুত্বপূর্ণ পরিকাঠামো ধ্বংস করতো। তবে, এটি সম্পূর্ণ ভিন্ন বিষয় যদি পুতিনের রক্তক্ষয়ী উদ্যোগটিতে সমাজের সমর্থন না থাকে।”

গত সপ্তাহে নাভালনি শহরগুলোতে যুদ্ধের বিরুদ্ধে প্রতিদিন বিক্ষোভ আয়োজনের আহ্বান জানান।

ওভিডি-ইনফো-র মতে, ২৪ ফেব্রুয়ারিতে ইউক্রেনের বিরুদ্ধে রাশিয়া আক্রমণ শুরু করার পর থেকে যুদ্ধের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করার কারণে ১৩,৫০০ জনেরও বেশি মানুষকে গ্রেফতার করেছে দেশটির পুলিশ। অলাভজনক এই প্রতিষ্ঠানটি রাশিয়াব্যাপী পুলিশী গ্রেফতার নজরদারি করে থাকে।

নাভালনি জানান যে, কয়েকটি জরিপ করে দেখা গিয়েছে যে, যুদ্ধে রাশিয়ার ভূমিকাটির মূল্যায়ন “দ্রুত পরিবর্তিত” হয়ে যাচ্ছে। নাভালনির সহকারী ও সহযোগীদের দ্বারা পরিচালিত এই চারটি অনলাইন জরিপের প্রত্যেকটিতে মস্কো থেকে ৭০০জন অংশগ্রহণ করে।

নাভালনি আরও বলেন, “সন্দেহাতীতভাবে, ক্রেমলিনও এই পরিবর্তন লক্ষ্য করছে, এবং তাই তারা বিচলিত এবং যুদ্ধ যত দ্রুত সম্ভব শেষ করার চেষ্টা করছে।”

XS
SM
MD
LG