অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

চীনে নেতৃত্বের পরিবর্তনের আগেই প্রধানমন্ত্রী পদত্যাগ করবেন


বেইজিং এ চীনের জাতীয় কংগ্রেসের (এনপিসি) অধিবেশন শেষে সংবাদ সম্মেলনে কথা বলছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী লি কেকিয়াং। মার্চ ১১ ২০২২। (ছবি- সিনহুয়া নিউজ এজেন্সি/ এপি)
বেইজিং এ চীনের জাতীয় কংগ্রেসের (এনপিসি) অধিবেশন শেষে সংবাদ সম্মেলনে কথা বলছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী লি কেকিয়াং। মার্চ ১১ ২০২২। (ছবি- সিনহুয়া নিউজ এজেন্সি/ এপি)

চীনের প্রধানমন্ত্রী লি কেকিয়াং শুক্রবার ঘোষণা দেন যে, তিনি এ্ক বছরের মধ্যেই পদত্যাগ করবেন। ঘোষণাটি একটি সংবাদ সম্মেলনে দেওয়া হয়, যেখানে তিনি দেশটির অর্থনীতি ব্যবস্থাপনার ক্রমেই কষ্টকর হয়ে ওঠা কাজটিকে “কম অক্সিজেন” সমৃদ্ধ একটি সুউচ্চ পাহাড়ে আরোহনের সাথে তুলনা করেন।

৬৬ বছর বয়সী লি বলেন, “এটিই শেষ বছর যখন আমি প্রধানমন্ত্রী থাকব”। তবে তার ঘোষণাটি অবাক করার মত কিছু নয়, কারণ চীনের প্রধানমন্ত্রী এবং মন্ত্রীপরিষদ সদস্যরা দুই মেয়াদের বেশি দায়িত্বপালন করতে পারেন না। লি এর দ্বিতীয় মেয়াদটি আগামী বছরই শেষ হবে।

তবে অপ্রত্যাশিত না হলেও ঘোষণাটি বিদেশী সরকার এবং বহুজাতিক কোম্পানীগুলোর জন্য গুরুত্ব বহন করে। তারা দেশটির ভবিষ্যৎ পথ সম্পর্কে ধারণা পেতে, বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম অর্থনীতির এই দেশটিতে নেতৃত্ব এবং রাজনৈতিক রদবদল গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করে।

নেতৃত্বের সর্বসাম্প্রতিক এই রদবদলটি প্রত্যাশা অনুযায়ী হলেও, শুক্রবারের ঘোষণাটি গুরুত্বপূর্ণ কারণ, চীন বর্তমানে ইউক্রেন যুদ্ধের রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক ফলাফল সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছে। আপাতদৃষ্টিতে মনে হচ্ছে যে, চীনে ক্ষমতাসীন চাইনিজ কমিউনিস্ট পার্টি বা সিসিপি, ইউক্রেন যুদ্ধ বা অন্যান্য নতুন ঘটনাবলীকে পরিকল্পনায় ব্যাঘাত ঘটাতে না দিয়ে, তাদের নেতৃত্বের ধারাবাহিকতার পরিকল্পনা ধরেই অগ্রসর হতে আগ্রহী।

ক্ষমতাসীন দলটি সম্ভবত ২০১৮ সালের সংবিধানের সংশোধনীটির মাধ্যমে জারি করা নেতৃত্বের ধারাবাহিকতার পরিকল্পনাটি ধরেই এগোবে। পরিকল্পনাটিতে প্রেসিডেন্টের জন্য দুই মেয়াদের সীমাবদ্ধতাটি বাতিল করা হয়। এটিকে মোটামুটি সকলেই এভাবে ব্যাখ্যা করেন যে, এটি চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং-এর শুধু তৃতীয় মেয়াদটিই নিশ্চিত করেনি বরং আমৃত্যু সেই পদে ক্ষমতাসীন থাকাও নিশ্চিত করেছে।

তবে দলটির অভ্যন্তরীণ সূত্রগুলো থেকে পাওয়া তথ্য ইঙ্গিত করে যে, শি হয়ত নিজে অন্য কোন ভূমিকা পালনের কথা বিবেচনা করছেন। তিনি হয়ত দলটির চেয়ারম্যান হতে পারেন, যেই পদটিতে দলটির প্রতিষ্ঠাতা মাও জেডং ছিলেন।

XS
SM
MD
LG