অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ইউক্রেনে নিহত বাংলাদেশি নাবিক হাদিসুরের মরদেহ ঢাকায় পৌঁছেছে


ইউক্রেনের বন্দরে রকেট হামলায় নিহত বাংলাদেশি “এমভি বাংলার সমৃদ্ধি” জাহাজের নাবিক হাদিসুর রহমান। (ছবি- ইউএনবি)
ইউক্রেনের বন্দরে রকেট হামলায় নিহত বাংলাদেশি “এমভি বাংলার সমৃদ্ধি” জাহাজের নাবিক হাদিসুর রহমান। (ছবি- ইউএনবি)

ইউক্রেনের অলভিয়া বন্দরে রকেট হামলায় নিহত বাংলাদেশি নাবিক হাদিসুর রহমানের মরদেহ সোমবার (১৪ মার্চ) ঢাকায় পৌঁছেছে।

বিমানবন্দরের একজন গোয়েন্দা সংস্থার কর্মকর্তা জানিয়েছেন, দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে টার্কিস এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইট হাদিসুরের মরদেহ নিয়ে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

রবিবার রোমানিয়া থেকে ইস্তাম্বুল হয়ে হাদিসুরের মরদেহ ঢাকায় আসার কথা থাকলেও ইস্তাম্বুলে প্রবল তুষারঝড়ের কারণে মরদেহ বহনকারী ফ্লাইট সময়মতো উড়তে পারেনি।

গত ৯ মার্চ যুদ্ধবিধ্বস্ত ইউক্রেনে আটকে পড়া বাংলাদেশি “বাংলার সমৃদ্ধি” জাহাজের জীবিত ২৮ নাবিক ঢাকায় পৌঁছেন। তারা ইউক্রেন থেকে মলদোভা হয়ে বুখারেস্টে পৌঁছান। পরে সেখান থেকে তারা ঢাকায় ফিরে আসেন।

রুশ আাগ্রাসনের কারণে বাংলাদেশ শিপিং করপোরেশনের (বিএসসি) “বাংলার সমৃদ্ধি” জাহাজটি ২৩ ফেব্রুয়ারি থেকে ইউক্রেনের অলভিয়া বন্দরে আটকা পড়ে।

৩ মার্চ রকেট হামলায় জাহাজটির থার্ড ইঞ্জিনিয়ার হাদিসুর নিহত হন। এরপর জাহাজটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়।

হাদিসুরের মরদেহ ইউক্রেনের কাছে একটি বাংকারে সংরক্ষিত ছিল। ইউক্রেনের যুদ্ধ পরিস্থিতি অবনতির কারণে হাদিসুরের মরদেহ ফিরিয়ে আনার প্রক্রিয়া বিলম্বিত হয়।

XS
SM
MD
LG