অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

স্থানীয় পিডিএফ নেতা মিয়ানমারের সাগাইং অঞ্চলে ১০ জনকে হত্যার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন


মিয়ানমার মানচিত্র

মিয়ানমারের সাগাইং অঞ্চলে জান্তা বিরোধী আধাসামরিক বাহিনীর নেতা শুক্রবার নিশ্চিত করেছেন যে তার গোষ্ঠী নভেম্বরের একটি ঘটনায় ১০ জনকে হত্যা করেছে এবং জাতীয় ঐকমত্যের ছায়া সরকার দ্বারা শুরু করা তদন্তে তা প্রমাণিত হলে তিনি তার দায় স্বীকার করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

সাগাইং এর বিপর্যস্ত ইয়িনমাবিন শহরতলীতে পিপলস ডিফেন্স ফোর্স গ্রুপের নেতা বোহ থানমানির বিবৃতি অনুযায়ী, স্ব-কথিত গণতন্ত্রপন্থি আধাসামরিক বাহিনীর ভূমিকা নিয়ে বিভ্রান্তি এড়াতে এনইউজিকে বিষয়টির পুঙ্খানুপুঙ্খ এবং স্বচ্ছ তদন্ত পরিচালনা করার আহ্বান জানায়।এই স্ব-কথিত গণতন্ত্রপন্থি আধাসামরিক বাহিনী দাবি করছে যে তারা মিয়ানমারের প্রত্যন্ত সীমান্ত অঞ্চলে সামরিক শাসনের সৈন্যদের হাত থেকে বেসামরিক নাগরিকদের রক্ষা করছে।

১৪ মার্চ তারিখে একটি চিঠিতে, নিজেদেরকে "স্থানীয় প্রতিরক্ষা বাহিনী" বলে অভিহিত করা জান্তা বিরোধী আরেকটি গোষ্ঠী দাবি করেছে যে ইয়ানমাবিন পিডিএফ যোদ্ধারা নভেম্বরে একটি ঘটনার সময় ২০২১ সালের অক্টোবর থেকে এলাকার ২১ জন বাসিন্দাকে হত্যা করেছে, যার মধ্যে ১০ জন তাদের সদস্য ছিল।

আরএফএ মিয়ানমার সার্ভিসের দাবিগুলোর তদন্তের সময়ে নভেম্বরে এই হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করা হয়েছে। ঐ এলাকার সূত্রগুলো জানায় যে তিনজন ইয়ানমাবিন পিডিএফ সদস্যরা ঐ হত্যাযজ্ঞ চালিয়েছিল , যদিও তাদের নাম এবং পদমর্যাদা তাৎক্ষণিকভাবে পরিষ্কার ছিল না।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে কয়েকটি সূত্র বলেছে যে দুটি গ্রুপের যোদ্ধাদের একটি যৌথ বাহিনী কানি শহরের লার পোয়েট গ্রামে জান্তা সেনাদের জন্য একটি ভূমি-মাইন আচমকা আক্রমণের জন্য স্থাপনে সমন্বয় করেছিল, কিন্তু বিস্ফোরকটি নির্দিষ্টি সময়ের আগেই বিস্ফোরিত হয় এবং পিডিএফ সদস্যরা নিজেরাই প্রায় প্রাণ হারাতে বসেছিল। পিডিএফ তখন যৌথ বাহিনীর সাথে জড়িত চারজন এলডিএফ সদস্যকে গ্রেপ্তার করে এবং যখন একজন এলডিএফ নেতা এবং তার পাঁচজন যোদ্ধা তাদের মুক্ত করতে যায়, তখন পিডিএফ তাদের এবং চার আটক ব্যক্তিকে হত্যা করে যাতে "কোন প্রমাণ না থাকে" ।

এলডিএফ-এর চিঠিতে অভিযুক্ত অন্য ১১টি হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে আরএফএ নিশ্চিত হতে পারেনি এবং নিহতদের পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারেনি।

XS
SM
MD
LG