অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ক্যামেরুনের হাসপাতালগুলোতে কলেরা রোগী উপচে পড়ছে


ক্যামেরুনের বাফৌসামের একটি আঞ্চলিক হাসপাতাল। ২০ সেপ্টেম্বর,২০২১, ছবি- এএফপি

ক্যামেরুনের জনস্বাস্থ্য মন্ত্রক জানায়, নাইজেরিয়ার সীমান্তসংলগ্ন লিম্বে,বুয়া ও টিকো শহরে কলেরার প্রাদুর্ভাব ছড়িয়ে পড়েছে।

দেশটির সরকার জানায়, গত ৭২ ঘণ্টায় ওই শহরগুলোর হাসপাতালে ভর্তি হওয়া ৬০০ জন রোগীর মধ্যে ১২ জন মারা গিয়েছে।

লিম্বে সরকারি হাসপাতালের পরিচালক নিয়েন্তি অ্যানেরেকে বলেছেন, ২০০ শয্যার ধারণ ক্ষমতা সম্পন্ন এই হাসপাতালে ২৪০ জনেরও বেশি কলেরা রোগী এসেছে।

বাড়তি রোগী মোকাবিলার জন্য স্বেচ্ছাসেবী কর্মীরা লিম্বে ও বুয়ে হাসপাতালে তাঁবু খাটাতে সাহায্য করছে।

বুধবার ক্যামেরুনের দক্ষিণ-পশ্চিম অঞ্চল যেখানে লিম্বে,টিকো ও বুয়া অবস্থিত সেখানকার গভর্নর বার্নার্ড ওকালিয়া বিলাই অন্তত ৩টি সংকটকালীন বৈঠকে সভাপতিত্ব করেছেন।

বিলাই বলেন, দীর্ঘ শুষ্ক মৌসুমের কারণে পশ্চিমাঞ্চলীয় শহর ও গ্রামে বিশুদ্ধ পানীয় জলের অভাবের দরুণ কলেরার প্রাদুর্ভাব ঘটে। নাগরিকদের উন্মুক্ত স্রোতের পানি পান করা থেকে বিরত থাকতে হবে। তিনি বলেন, সরকার লিম্বে,বুয়া ও টিকোর মতো শুষ্ক শহরগুলোতে পানি সরবরাহ করবে তবে কবে থেকে করবে তা তিনি বলেননি।

এদিকে স্বাস্থ্যকর্মীরা দ্বারে দ্বারে ঘুরে বেসামরিক নাগরিকদের কূপ ও জলাশয়ের পানি ফুটিয়ে পান করতে উৎসাহিত করছেন।

সরকার বলছে, শুধুমাত্র সঠিকভাবে রান্না করা খাবার সবার খাওয়া উচিত এবং খাবারের আগে ও পরে এবং বাথরুম ব্যবহার করার পরে সবার হাত ধোয়া উচিত।

ফেব্রুয়ারিতে এর আগেরবার কলেরা প্রাদুর্ভাবে ১৩৩০ জন আক্রান্ত হয়েছিল এবং প্রায় ৩৬ জন মারা গিয়েছিল।

XS
SM
MD
LG