অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

পুতিনের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর অঙ্গীকার যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপীয় কমিশনের; পোল্যান্ড সফরে বাইডেন


প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সফরের প্রাক্কালে যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনীর একটি ব্ল্যাক হক হেলিকপ্টার জেঁসফ-জাসিওঙ্কা বিমানবন্দরের উপর দিয়ে উড়ে যাচ্ছে, ২৫ মার্চ ২০২২, ছবি- রয়টার্স

ইউরোপীয় কমিশনের প্রেসিডেন্ট আরসুলা ভন ডার লেয়েন এর সাথে ব্রাসেলসে সাক্ষাতের পর যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন শুক্রবার পোল্যান্ডে এসে পৌঁছান।

রাশিয়ার জীবাশ্ম জ্বালানীর উপর নির্ভরশীলতা কমানোর জন্য একটি যৌথ টাস্ক ফোর্স গঠনের ঘোষণা দিয়েছেন বাইডেন এবং ভন ডার লেয়েন।

বাইডেন বলেন যে, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন দেশটির জ্বালানী থেকে বিক্রয়লব্ধ অর্থ ইউক্রেনে “তার যুদ্ধযন্ত্রটি চালাতে” ব্যবহার করেছেন। বাইডেন বলেন যে, তিনি “এই বিষয়টি পরিষ্কার করতে চান যে আমেরিকার জনগণ ইউক্রেনের বিরুদ্ধে পুতিনের নিষ্ঠুর, অন্যায় যুদ্ধটির ভর্তুকি প্রদানের অংশ হবে না”।

ভন ডার লেয়েন বলেন, “রাশিয়ার নিষ্ঠুর যুদ্ধটির বিরুদ্ধে দাঁড়াতে আমরা বদ্ধ পরিকর”। তিনি আরও বলেন, “এই যুদ্ধটি পুতিনের জন্য একটি কৌশলগত পরাজয় হবে”।

যুক্তরাষ্ট্র ইউরোপকে চলতি বছরে ১,৫০০ কোটি ঘন মিটার তরলীকৃত প্রাকৃতিক গ্যাস সরবরাহ করছে।

পোল্যান্ডে, দেশটির পূর্বাঞ্চলের ও ইউক্রেনের সীমান্তের নিকটবর্তী জেঁসো শহরটি সফর করবেন বাইডেন। নেটোর মিত্রদেশ পোল্যান্ড, ইউক্রেনের লক্ষ লক্ষ শরণার্থীকে তাদের দেশে আশ্রয় দিয়েছে।

বৃহস্পতিবার দিনে আরও আগে বাইডেন বলেন যে, রাশিয়া যদি ইউক্রেনে রাসায়নিক অস্ত্র ব্যবহার করে তাহলে পশ্চিমা দেশগুলো সামরিকভাবে সেটির প্রতিক্রিয়া জানাবে।

নেটো সদর দফতরে তিনি আরও বলেন যে, বিশ্বের ২০টি প্রধান অর্থনীতির দেশগুলোর জোট (জি-টুয়েন্টি) থেকে রাশিয়াকে বহিষ্কার করা উচিৎ এবং ইউক্রেনকে জি-টুয়েন্টির সভাগুলোতে অংশগ্রহণের সুযোগ দেওয়া উচিৎ।

বাইডেন নিশ্চিত করেন যে বৃহস্পতিবার অন্যান্য বিশ্বনেতাদের সাথে সাক্ষাৎকালে এই বিষয়টি উত্থাপন করা হয় যখন কিনা রাশিয়ার ইউক্রেন আক্রমণের এক মাস পূরণ হয়।

নেটো বৈঠকে অংশগ্রহণ করা ছাড়াও বৃহস্পতিবার জি-সেভেন নেতাদের সাথে এবং ইউরোপীয়ান কাউন্সিলের সাথেও বৈঠক করেন বাইডেন।

XS
SM
MD
LG