অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

বাইডেনের পোল্যান্ড সফরকালে যুক্তরাষ্ট্র বলেছে, রাশিয়া কিয়েভ থেকে দূরে আক্রমণ সরিয়ে নিচ্ছে


ইউক্রেনের খারকিভে রাশিয়ান হামলার পর একজন ব্যক্তি জ্বলন্ত দোকান থেকে জিনিসপত্র উদ্ধার করছেন। ২৫ মার্চ ২০২২

ব্রাসেলস—যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন শনিবার ওয়ারস’ অবস্থান করছিলেন। যেখানে তিনি ইউক্রেনে রাশিয়ার আগ্রাসন নিয়ে আলোচনা করতে পোলিশ প্রেসিডেন্ট আন্দ্রে ডুদা ও অন্য পোলিশ কর্মকর্তাদের সঙ্গে দেখা করবেন। তবে এই সফরটি এমন সময় ঘটছে, যখন যুক্তরাষ্ট্র বলেছে যে, রাশিয়া দৃশ্যত তার সামরিক আক্রমণ ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভ থেকে দূরে, ইউক্রেনের পূর্ব দিকে সরিয়ে নিয়ে যাচ্ছে।

নেটোর সদস্য পোল্যান্ড এখন পর্যন্ত কুড়ি লক্ষেরও বেশি ইউক্রেনীয় শরণার্থী গ্রহণ করেছে। বাইডেন ওয়ারস’র মেয়র রাফাল ত্রজাস্কোস্কির সঙ্গে নিয়ে মানবিক ত্রাণ প্রচেষ্টা নিয়ে আলোচনা করতে শনিবার কিছু শরণার্থীর সঙ্গে দেখা করবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

হোয়াইট হাউজের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জ্যাক সালিভানের মতে, শনিবারের পরে, বাইডেন ওয়ারশর রয়্যাল ক্যাসেলে একটি ভাষণ দেবেন।

যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন শুক্রবার পোল্যান্ড সফরের সময় ইউক্রেনে রাশিয়ার আক্রমণের ফলে উদ্ভূত শরণার্থী সংকটে পোল্যান্ডের সহায়তার প্রশংসা করেছেন।

বাইডেন শুক্রবার ইউক্রেন সীমান্তের কাছে পোলিশ মানবিক সহায়তা কর্মীদের এবং আমেরিকান সেনাদের সঙ্গে দেখা করেন।

“আপনারা গণতন্ত্র এবং ধনকুবেরদের মধ্যকার লড়াইয়ের মাঝে রয়েছেন”, বাইডেন যুক্তরাষ্ট্রের সেনাবাহিনীর ৮২তম এয়ারবর্ন ডিভিশনের সদস্যদের সঙ্গে রজেসোতে দেখা করে বলেন। এই সেনারা লাটভিয়া, এস্তোনিয়া, বুলগেরিয়া, রোমানিয়া, পোল্যান্ড ও লিথুয়ানিয়াসহ পূর্ব ইউরোপের দেশগুলোতে হাজার হাজার নেটো সেনার সঙ্গে রয়েছেন।

প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন শুক্রবার পোল্যান্ডে সেনাদের সঙ্গে প্রথম দেখা করেন ডিভিশনের অস্থায়ী সদর দপ্তরে একটি অস্থায়ী নাপিতের দোকানে। তারপরে তিনি আরেকটি স্থাপনায় সেনাদের সঙ্গে বসে পিজ্জা খান।

কৌশল পরিবর্তন

অন্যদিকে, যুক্তরাষ্ট্র ও পশ্চিমা কর্মকর্তারা শুক্রবার বলেছেন যে, সেনা সংখ্যায় এগিয়ে থাকা সত্ত্বেও, রাশিয়ান বাহিনী ইউক্রেনে লড়তে বেশ হিমশিম খাচ্ছে। এরফলে তারা কৌশল পরিবর্তনে বাধ্য হচ্ছে।

গোয়েন্দা তথ্য নিয়ে আলোচনা করায় নাম প্রকাশ না করার শর্তে যুক্তরাষ্ট্রের একজন জ্যেষ্ঠ প্রতিরক্ষা কর্মকর্তা সাংবাদিকদের বলেন, “আমরা মনে করি তারা দনবাস এলাকাকে বিচ্ছিন্ন করে ফেলার চেষ্টা করছে”।

“আমরা গত কয়েক সপ্তাহ ধরে এই বিষয়ে আলোচনা করছি”, ওই কর্মকর্তা মস্কোর সামরিক অগ্রাধিকারের পরিবর্তন সম্পর্কে বলেন।

দনবাসেই এখনো ব্যাপক লডাই চলছে এবং আমরা মনে করি তারা কেবল সম্ভাব্য আলোচনায় নিজেদের জন্য আরও লাভের কৌশল হিসেবে এটা করছে না বরং দেশটির পূর্ব অংশে ইউক্রেনীয় বাহিনীকে বিচ্ছিন্ন করে ফেলারও চেষ্টা করছে”।

রাশিয়ার ডেপুটি চিফ অফ দ্য জেনারেল স্টাফ, কর্নেল জেনারেল সের্গেই রুডসকোই পরিবর্তনের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেছেন যে, রাশিয়ার অপারেশনের প্রথম কাজ—ইউক্রেনের যুদ্ধ ক্ষমতা হ্রাস করার ওপর দৃষ্টি নিবদ্ধ করা—“মোটামুটি সম্পন্ন হয়েছে”। তিনি বলেন যে, রাশিয়ান বাহিনীর এখন “মূল লক্ষ্য, দনবাসের মুক্তি” এর দিকে মনোনিবেশ করছে।

পশ্চিমা গোয়েন্দা তথ্যমতে, কৌশলের পরিবর্তন, আংশিকভাবে, একটি রুশ যুদ্ধ পরিকল্পনাকে পুরুদ্ধারের প্রচেষ্টা। যার মাধ্যে ইউক্রেন সরকারকে যত তাড়াতাড়ি পতন ঘটাতে পারবে বলে রাশিয়া ধারণা করেছিল তা ব্যর্থ হয়েছে।

মানবিক পরিস্থিতি

বাইডেনের পোল্যান্ডে যুক্তরাষ্ট্রের সেনাদের সঙ্গে দেখা করার পরে তাকে রজেসো-জাসিওনকা বিমানবন্দরে যুদ্ধের ফলে উদ্ভূত মানবিক পরিস্থিতি সম্পর্কে অবহিত করা হয়। তিনি বলেন, ইউক্রেনের মানবিক সংকট সরাসরি পর্যবেক্ষণ করতে না পারায় তিনি হতাশ হয়েছেন।

“তারা স্বভাবতই, আমাকে সীমান্ত অতিক্রম করতে এবং ইউক্রেনে কী ঘটছে তা করতে দেবে না”, তিনি বলেন। নেটোভুক্ত দেশ পোল্যান্ড লাখ লাখ ইউক্রেনীয় শরণার্থী গ্রহণ করেছে।

বাইডেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে “এমন একজন ব্যক্তি, যিনি স্পষ্টভাবে, আমি মনে করি একজন যুদ্ধাপরাধী” হিসেবে উল্লেখ করেন, এবং বলেন “আমি মনে করি আমরা এটাকে আইনস্বিদ্ধভাবে সংজ্ঞায়িত করব”। বাইডেন এর আগে পুতিনকে যুদ্ধাপরাধী হিসেবে উল্লেখ করায় রাশিয়ায় ক্ষোভের সৃষ্টি হয়।

[এই প্রতিবেদনের জন্য কিছু তথ্য দ্য অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস, এজেন্সি ফ্রান্স-প্রেস ও রয়টার্স থেকে নেওয়া হয়েছে]

XS
SM
MD
LG