অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

যুদ্ধবিরতি সাত বছরের যুদ্ধকবলিত ইয়েমেনের মানুষদের মনে আশা জাগিয়েছে


ইয়েমেনের সানার রাস্তায় মানুষ চলাচল করছেন। দেশটিতে ২ এপ্রিল (২০২২) থেকে দুই মাসের জন্য যুদ্ধবিরতি কার্যকর হয়েছে

সাত বছরের সংঘাতে বিধ্বস্ত ইয়েমেনে শনিবার (২ এপ্রিল) সন্ধ্যায় কার্যকর হওয়া যুদ্ধবিরতিকে আশা জাগানিয়া হিসেবে দেখছেন সাধারণ নাগরিকেরা। দেশব্যাপী জাতিসংঘের মধ্যস্থতামূলক যুদ্ধবিরতিকে স্বাগত জানিয়েছেন লাখ লাখ ইয়েমেনি। দীর্ঘ এই যুদ্ধ দেশটির মানুষকে ক্ষুধা, দারিদ্র্য এবং গৃহহীন অবস্থার দিকে ঠেলে দিয়েছে।

কিন্তু শান্তির জন্য অসংখ্য ব্যর্থ প্রচেষ্টা এবং এক বছরেরও বেশি সময় ধরে ক্রমবর্ধমান সহিংসতার পরে, ইয়েমেনিরা সতর্কতার সঙ্গে এই সংবাদকে স্বাগত জানিয়েছেন।

ইয়েমেন সরকারের অন্তর্বর্তী রাজধানী এডেনে ৩৮ বছর বয়সী ইলেকট্রিশিয়ান মুরাদ আবদুল্লাহ বলেছেন, “যুদ্ধবিরতি ভালো, কিন্তু আমি এর সাফল্যে বিশ্বাস করি না। কারণ প্রতিটি পক্ষের একেক রকম ব্যাখ্যা থাকবে কীভাবে এটি বাস্তবায়ন করা যায় এবং শেষে এটি ভেঙে পড়বে”।

মুসলিমদের জন্য পবিত্র মাস রমজানের শুরুতে দুই মাসের যুদ্ধবিরতির মাধ্যমে ২০১৬ সালের পর এই প্রথম যুদ্ধরত পক্ষগুলো দেশব্যাপী সহিংসতা বন্ধ করতে সম্মত হয়েছে।

যুদ্ধবিরতি কার্যকর হওয়ার কথা ছিল স্থানীয় সময় সন্ধ্যা ৭টায় এবং এটি নবায়নের সুযোগও রয়েছে।

এই চুক্তির মধ্যে আন্তসীমান্ত আক্রমণসহ সামরিক অভিযান বন্ধ করা এবং ইরান-সমর্থিত হুথি গোষ্ঠী কর্তৃক নিয়ন্ত্রিত এলাকায় জ্বালানি আমদানি এবং হুথি-নিয়ন্ত্রিত রাজধানী সানা থেকে কিছু বাণিজ্যিক ফ্লাইট পরিচালনার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

সৌদি আরবের নেতৃত্বে গঠিত সামরিক জোট ইয়েমেনের সমুদ্র ও আকাশপথ নিয়ন্ত্রণ করে। এই জোট ২০১৫ সালের মার্চ থেকে হুথিদের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ইয়েমেনি সরকারকে সমর্থন করে আসছে।

জাতিসংঘের বিশেষ দূত হ্যান্স গ্রান্ডবার্গ বলেছেন, তিনি স্থায়ী যুদ্ধবিরতির জন্য চাপ দেবেন। ইয়েমেনে জাতিসংঘ এবং যুক্তরাষ্ট্রের দূতেরা গত বছর থেকে স্থবির রাজনৈতিক আলোচনা পুনরুজ্জীবিত করার জন্য প্রয়োজনীয় একটি স্থায়ী যুদ্ধবিরতির জন্য চেষ্টা করছিলেন। হুথিরা প্রথমে জোটের অবরোধ তুলে নেয়ার দাবি করে। তবে জোট একই সঙ্গে একটি চুক্তির কথা বলে।

এই সংঘাতকে সুন্নি মুসলিম অধ্যুষিত সৌদি আরব এবং শিয়া অধ্যুষিত ইরানের মধ্যে ছায়াযুদ্ধ হিসেবে দেখা হয়।

ইরান শনিবার বলেছে, তারা আশা করে যে, যুদ্ধবিরতি সম্পূর্ণ অবরোধ তুলে নেওয়া এবং একটি স্থায়ী যুদ্ধবিরতি ঘোষণার সূচনা হতে পারে।

XS
SM
MD
LG