অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

চীনা হ্যাকারদের লক্ষ্যবস্তু ভারতের বিদ্যুত গ্রিড, বলছে রিপোর্ট


নয়াদিল্লির উপকণ্ঠে বিদ্যুতের টাওয়ারের চারপাশে পাখি উড়ছে। ১ মার্চ,২০১৬।
নয়াদিল্লির উপকণ্ঠে বিদ্যুতের টাওয়ারের চারপাশে পাখি উড়ছে। ১ মার্চ,২০১৬।

রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় একদল চীনা হ্যাকার ভারতের বিদুৎ বিভাগকে টার্গেট করেছে বলে মনে করা হচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্র ভিত্তিক একটি বেসরকারি সাইবার নিরাপত্তা সংস্থার এক নতুন প্রতিবেদনে এ সম্পর্কে বিস্তারিত জানানো হয়।

গত কয়েক মাস ধরে ম্যাসাচুসেটস ভিত্তিক রেকর্ডেড ফিউচারের ঝুঁকি গবেষণা বিভাগ ইনসিক্ট গ্রুপ বলেছে, তারা প্রমাণ সংগ্রহ করেছে যে, হ্যাকাররা দুই পারমাণিক প্রতিবেশীর বিতর্কিত সীমান্ত এলাকায় বিদ্যুৎ পরিবহন ও গ্রিড নিয়ন্ত্রণ পরিচালনার জন্য ৭টি ভারতীয় রাজ্যের বিদ্যুৎ কেন্দ্র টার্গেট করেছে।

বৃহস্পতিবার চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রকের মুখপাত্র ঝাও লিজিয়ান বলেছেন, প্রতিবেদনটি বেইজিং-এর ‘দৃষ্টিগোচর’ হয়েছে, তবে “চীন দৃঢ়তার সাথে যেকোনো ধরনের সাইবার হামলার বিরোধিতা ও মোকাবিলা করে এবং কোনো সাইবার আক্রমণকে উৎসাহিত,সমর্থন বা ক্ষমা করবে না।“

বৃহস্পতিবার ভারতের বিদ্যুৎ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রককে মন্তব্য জানতে চেয়ে ফোন করা হলে তারা তাৎক্ষণিকভাবে কল ব্যাক করেনি তবে বিদ্যুৎ মন্ত্রী আর.কে. সিং বলেছেন যে, প্রতিবেদনটি নিয়ে উদ্বেগের কিছু নেই।

হ্যাকাররা ইন্টারনেটের সাথে সংযুক্ত তৃতীয় পক্ষের একটি যন্ত্র যেমন আইপি ক্যামেরার মাধ্যমে প্রবেশ করতে পেরেছে বলে কোম্পানি জানিয়েছে। সম্ভবত যন্ত্রটি হ্যাক করা হয়েছিল।

ভারতের বিদ্যুতের গ্রিডকে দীর্ঘমেয়াদে লক্ষ্যবস্তু বানানোর ফলে “সীমিত অর্থনৈতিক গুপ্তচরবৃত্তি ব ঐতিহ্যগত গোয়েন্দা তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহের সুযোগ পাওয়া গেছে” বলে জানায় রেকর্ডেড ফিউচার। তারা আরও জানায়, সম্ভবত এর উদ্দেশ্য, আশেপাশের গুরুত্বপূর্ণ অবকাঠামো থেকে তথ্য সংগ্রহ করতে সক্ষম হওয়া অথবা ভবিষ্যতের কার্যকলাপের জন্য আগেই অবস্থান নেয়া।

XS
SM
MD
LG