অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

খাশোগজির হত্যায় সন্দেহভাজনদের বিচার স্থগিত করেছে তুরস্কের আদালত


খাশোগজি হত্যাকাণ্ডটির বিচারের শুনানিতে উপস্থিতি শেষে, ইস্তাম্বুলের জাস্টিস প্যালেস আদালত ভবন থেকে বের হচ্ছেন সাংবাদিক জামাল খাশোগজির বাগদত্তা, হাতিসে সেনগিজ, ৭ এপ্রিল ২০২২।

সাংবাদিক জামাল খাশোগজির নিষ্ঠুর হত্যাকাণ্ডের দায়ে অভিযুক্ত ২৬জন সৌদি নাগরিকের বিরুদ্ধে করা মামলাটির বিচার তুরস্কের একটি আদালত স্থগিত করে দিয়েছে এবং বিচার প্রক্রিয়াটি সৌদি আরবে স্থানান্তরের আদেশ দিয়েছে।

খাশোগজি হত্যার দায়ে ঐ সৌদি নাগরিকদের অনুপস্থিতিতেই তাদের বিচার প্রক্রিয়া চলছিল। ২০১৮ সালে নিজের বাগদত্তার বিয়ের কাগজপত্র গ্রহণের জন্য ইস্তাম্বুলে সৌদি কনস্যুলেটে প্রবেশ করার পর সেখানে খাশোগজিকে হত্যা করা হয়েছিল।

সৌদি রাজপরিবারের একজন কট্টর সমালোচক ছিলেন খাশোগজি। তার খুনের ঘটনাটি বিশ্বকে চমকে দিয়েছিল। এক বছর আগে প্রকাশিত যুক্তরাষ্ট্রের একটি গোয়েন্দা প্রতিবেদনে বলা হয় যে, সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান, খাশোগিকে মেরে ফেলার বা আটক করার উদ্দেশ্যে পরিচালিত অভিযানটির অনুমোদন দিয়েছিলেন।

সুন্নি ‍মুসলিম এই দুই দেশের মধ্যে তুমুল উত্তেজনাকর সম্পর্কের মধ্যেই, ২০২০ সালে বিচারটি আরম্ভ হয়। তবে, তুরস্কের অর্থনৈতিক মন্দাবস্থায় বিনিয়োগ বৃদ্ধির উদ্দেশ্যে দেশটি সৌদি আরবের সাথে সম্পর্ক উন্নয়নের চেষ্টা করে আসছে।

মামলাটির বিচার প্রক্রিয়া সৌদি আরবে স্থানান্তরিত করার তুরস্কের আদালতের সিদ্ধান্তটির প্রতি নিন্দা জানিয়েছে মানবাধিকার সংস্থাগুলো।

XS
SM
MD
LG