অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে এক প্রবীণ সাংবাদিককে গ্রেফতার করেছে হংকং পুলিশ


জাতীয় নিরাপত্তা আইনের অধীনে অ্যাপল ডেইলি সংবাদপত্রের প্রধান সম্পাদক এবং চারজন সিনিয়র নির্বাহীকে গ্রেপ্তার করার পর, হংকংয়ের অ্যাপল ডেইলি সদর দফতরের বাইরে পাহারা দিচ্ছেন একজন পুলিশ অফিসার। ১৭ জুন, ২০২১। (ফাইল ছবি)

হংকং — হংকংয়ের জাতীয় নিরাপত্তা পুলিশ, সোমবার রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে, একজন প্রবীণ সাংবাদিককে গ্রেপ্তার করেছে। তিনি বন্ধ হয়ে যওয়া উদারপন্থী সংবাদ প্রতিষ্ঠান স্ট্যান্ড নিউজের প্রদায়ক ছিলেন। পুলিশ এবং স্থানীয় গণমাধ্যম এ তথ্য জানিয়েছে। তার নাম অ্যালান অউ। তিনি একজন শিক্ষাবিদও।

ব্রিটিশ ঔপনিবেশিক যুগের একটি রাষ্ট্রদ্রোহ আইন এবং চীনের আরোপিত জাতীয় নিরাপত্তা আইনের ভিত্তিতে, পুলিশ এখন হংকংয়ের সংবাদ প্রতিষ্ঠানে প্রায়ই তল্লাসী চালায় ও বন্ধ করে দেয়। বন্ধ করে দেয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে অ্যাপল ডেইলি এবং স্ট্যান্ড নিউজও রয়েছে।
স্থানীয় পুলিশ এক বিবৃতিতে বলেছে, পুলিশ বাহিনীর জাতীয় নিরাপত্তা বিভাগ, ৫৪ বছর বয়সী একজন পুরুষকে "রাষ্ট্রদ্রোহী সংবাদ প্রকাশের ষড়যন্ত্রের" অভিযোগে গ্রেপ্তার করেছে। আরও তদন্তের জন্য তাকে আটক রাখা হয়েছে।
স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম আটক ব্যক্তিকে অ্যালান অউ বলে শনাক্ত করেছে। তিনি প্রবীণ সাংবাদিক ও শিক্ষাবিদ। হংকং-এর চীনা বিশ্ববিদ্যালয়ের এই শিক্ষক অধুনা লুপ্ত অ্যাপল ডেইলিসহ বেশকিছু সংবাদপত্রে কলাম লিখতেন।

অ্যালান অউ’র সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

হংকংয়ের নেতা ক্যারি লামকে এক সংবাদ সম্মেলনে অউ-এর গ্রেপ্তারের বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে, লাম বলেন, তিনি ব্যক্তির বিষয়ে কোনও মন্তব্য করবেন না। তবে, তিনি বলেন, শহরের ক্ষুদ্র-সংবিধানটি মৌলিক আইন। এতে সংবাদপত্রের স্বাধীনতা নিশ্চিত করা হয়েছে।

হংকংয়ের সাংবাদিক সংগঠন “ দ্য হংকং জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশন’ এ ব্যাপারে "গভীর উদ্বেগ" প্রকাশ করেছে। বলেছে, অউ’য়ের গ্রেপ্তারের ফলে "হংকংয়ের সংবাদপত্রের স্বাধীনতার আরও ক্ষতিগ্রস্থ হলো।" অউ, স্ট্যানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক নাইট ফেলো।

অউ তার সর্বশেষ প্রকাশিত কলামের একটিতে, চীনের সাংবিধানিক প্রতিশ্রুতির বিষয়টি উল্লেখ করে লিখেছেন, “ভাবছিলাম ২০৪৭ সাল পর্যন্ত লিখতে পারব কিনা, শেষ পর্যন্ত দেখলাম এটি কেবলই একটি বিভ্রম। এ ছাড়া আর কিছুই নয়”।

তিনি লিখেছেন, “আমরা এখনও ২০৪৭ এ পৌঁছাইনি, কিন্তু ইতোমধ্যেই আমাদের চোখের সামনে ২০৪৭ এসে গেছে”।

XS
SM
MD
LG