অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ইউক্রেনে যুদ্ধের কারণে বিশ্ব অর্থনীতি বিভক্ত হবার ব্যাপারে সতর্ক করেছে বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থা


ডব্লিউটিও-র মহাপরিচালক এনগোজি ওকোনজো-আইওয়ালার সংবাদ সম্মেলন, জেনেভায় ডব্লিউটিও-র সদর দপ্তরে। ১২ই এপ্রিল ২০২২

মঙ্গলবার বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থা (ডব্লিউটিও) সতর্ক করে দিয়ে বলেছে যে, ইউক্রেনে রাশিয়ার যুদ্ধ বিশ্ব বাণিজ্যের সম্ভাবনাকে অন্ধকার করে দিয়েছে। কারণ এই সংঘাতের কারণে প্রতিদ্বন্দ্বী ব্লকে বিভক্ত বিশ্ব অর্থনীতির ব্যাপারে শঙ্কা তৈরি হয়েছে।

বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থা বলেছে যুদ্ধটি এই বছর বিশ্ব বাণিজ্যের বৃদ্ধিকে ক্ষতিগ্রস্ত করবে এবং বৈশ্বিক মোট দেশজ উৎপাদন (জিডিপি) প্রবৃদ্ধিরও রাশ টেনে ধরবে।

জেনেভায় বিশ্ব বাণিজ্য সংস্থার সদর দপ্তরে এক সংবাদ সম্মেলনে ডব্লিউটিও-র মহাপরিচালক এনগোজি ওকোনজো-আইওয়ালা বলেন, “এটি পিছিয়ে আসার সময় নয়।“

ডব্লিউটিও বলেছে, বাজারের বিনিময় হার অনুযায়ী ২০২২ সালে বিশ্ব জিডিপির প্রত্যাশিত বৃদ্ধির হার ২.৮ শতাংশ যা পূর্ববর্তী পূর্বাভাস ৪.১ শতাংশ থেকে ১.৩ শতাংশ কম। ২০২১ সালে বৃদ্ধির হার ছিল ৫.৭ শতাংশ।

২০২৩ সালে এ বৃদ্ধি ৩.২ শতাংশ হওয়া উচিত যা ২০১০ থেকে ২০১৯ এর মধ্যকার বৃদ্ধির হারের গড় অর্থাৎ ৩ শতাংশের কাছাকাছি।

ডব্লিউটিও এখন ২০২২ সালে পণ্য বাণিজ্যের পরিমাণ ৩ শতাংশ বৃদ্ধির আশা করছে যা তার আগের পূর্বাভাস ৪ .৭ শতাংশ থেকে কম। ২০২৩ সালে তাদের বাণিজ্য বৃদ্ধির লক্ষ্যমাত্রা ৩ .৪।

ডব্লিউটিও বলেছে, ইউক্রেন যুদ্ধই বর্তমানে বিশ্ব বাণিজ্যের একমাত্র চিন্তার বিষয় নয়।

তারা বলেছে, কোভিড-১৯ সংক্রমণ রোধ করতে চীনের লকডাউন আবার এমন এক সময়ে সমুদ্র-কেন্দ্রীক বাণিজ্যকে ব্যহত করছে যখন সরবরাহ চেইনের চাপ কমে এসেছে বলে মনে হচ্ছে।

সংস্থাটি বলেছে, “এর ফলে আবার উৎপাদনের কাঁচামালের ঘাটতি ও উচ্চ মুদ্রাস্ফীতি দেখা দিতে পারে।“

XS
SM
MD
LG