অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

যুক্তরাজ্য সরকারের কাছে অ্যাসাঞ্জকে প্রত্যর্পনের সিদ্ধান্ত দিলেন ব্রিটিশ বিচারক


উইকিলিকসের প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জের সমর্থকরা প্ল্যাকার্ড নিয়ে লন্ডনে ওয়েস্টমিনস্টার ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বাইরে জড়ো হয়। ২০ এপ্রিল, ২০২২।
উইকিলিকসের প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জের সমর্থকরা প্ল্যাকার্ড নিয়ে লন্ডনে ওয়েস্টমিনস্টার ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বাইরে জড়ো হয়। ২০ এপ্রিল, ২০২২।

গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জকে যুক্তরাষ্ট্রের কাছে প্রত্যর্পনের আনুষ্ঠানিক অনুমোদন দিয়েছেন একজন ব্রিটিশ বিচারক। এই আদেশ বছরের পর বছর ধরে চলে আসা প্রত্যর্পণ যুদ্ধের অবসান ঘটায়। গত মাসে যুক্তরাজ্যের সুপ্রিম কোর্ট অ্যাসাঞ্জকে নিম্ন আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করার অনুমতি প্রত্যাখ্যান করার পরে এ আদেশ প্রদান করা হয়।

এ পদক্ষেপটি অ্যাসাঞ্জের আইনি বিকল্পের সকল পথকে বন্ধ করে দেয়নি। এক দশকেরও বেশি আগে উইকিলিক্সের ক্লাসিফাইড নথি প্রকাশ সংক্রান্ত অভিযোগে যুক্তরাষ্ট্রের বিচার এড়াতে বছরের পর বছর ধরে চেষ্টা করছেন অ্যাসাঞ্জ।

যুক্তরাষ্ট্র ব্রিটিশ কর্তৃপক্ষকে অ্যাসাঞ্জকে হস্তান্তর করতে বলেছে যাতে তাকে গুপ্তচরবৃত্তির ১৭টি অভিযোগ এবং কম্পিউটার অপব্যবহারের একটি অভিযোগে বিচারের মুখোমুখি করা যায়।

অ্যাসাঞ্জ যুক্তরাষ্ট্রের কঠোর কারাগারে বন্দি থাকলে আত্নহত্যা করতে পারে- এই ভিত্তিতে একটি ব্রিটিশ জেলা আদালতের বিচারক প্রথমিকভাবে যুক্তরাষ্ট্রের প্রত্যর্পনের অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করেছিলেন। যুক্তরাষ্ট্রের কর্তৃপক্ষ পরে আশ্বাস দিয়েছে যে, উইকিলিকসের প্রতিষ্ঠাতার আইনজীবীরা তার যে শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্যের ঝুঁকির আশঙ্কা করছেন তেমন গুরুতর অবস্থার মুখোমুখি তাকে করা হবে না।

২০১৯ সালে অ্যাসাঞ্জকে একটি পৃথক আইনি লড়াইয়ের সময় জামিন এড়িয়ে যাওয়ার কারণে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল । তখন তাকে বেলমার্শ কারাগারে রাখা হয়। এর আগে তিনি ধর্ষণ ও যৌন নিপীড়নের অভিযোগে সুইডেনের প্রত্যর্পণ এড়াতে লন্ডনে ইকুয়েডর দূতাবাসের ভেতরে ৭ বছর কাটিয়েছেন।

অনেক সময় অতিবাহিত হওয়ায় ২০১৯ সালের নভেম্বরে সুইডেন যৌন অপরাধের তদন্ত বাদ দিয়েছে।

গত মাসে অ্যাসাঞ্জ এবং তার সঙ্গী স্টেলা মরিস কারাগারের এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে বিয়ে করেন।

XS
SM
MD
LG