অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

দক্ষিণ ইউক্রেন দখল করতে চায় রাশিয়া; জাতিসংঘ প্রধানের মস্কো সফর মঙ্গলবার


ফাইল ছবি: ইউক্রেনের মারিউপোলের নিকটবর্তী রুশ সমর্থিত বিচ্ছিন্নতাবাদীদের নিয়ন্ত্রণাধীন এলাকার একটি হাইওয়ে দিয়ে রাশিয়ার সামরিক বহর যাচ্ছে, ১৬ এপ্রিল ২০২২।

রাশিয়ার এক জেনারেল শুক্রবার বলেন যে, রাশিয়া ইউক্রেনের সম্পূর্ণ দক্ষিণাঞ্চল ও পূর্বাঞ্চল দখল করতে চায়। এমন বক্তব্য রাশিয়ার আগের স্বীকার করা পরিকল্পনার তুলনায় আরও অনেক বিস্তৃত এক আক্রমণের বিষয়ে ইঙ্গিত বহন করে। এ দিকে জাতিসংঘের মহাসচিব আগামী সপ্তাহে মস্কো সফরের পরিকল্পনার ঘোষণা দিয়েছেন।

ইউক্রেন বলছে, রুস্তম মিনেকায়েভের মন্তব্য প্রমাণ করে যে, ইউক্রেনে রাশিয়ার এলাকা দখলের কোন আকাঙ্ক্ষা নেই বলে তাদের আগের দাবিটি মিথ্যা। মিনেকায়েভ রাশিয়ার সেন্ট্রাল মিলিটারি ডিস্ট্রিক্ট এর সহকারী কমান্ডার।

রাশিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা মিনেকায়েভকে উদ্ধৃত করে জানায় যে, মস্কো ইউক্রেনের পূর্বাঞ্চলের সম্পূর্ণ ডনব্যাস অঞ্চল দখল করতে চেয়েছিল। এর ফলে ক্রাইমিয়া উপদ্বীপকে একটি স্থল করিডোরের মাধ্যমে সংযুক্ত করা সম্ভব হবে। এছাড়াও রাশিয়া অধিকৃত বিচ্ছিন্ন মলডোভা অঞ্চল অবধি ইউক্রেনের সম্পূর্ণ দক্ষিণাঞ্চলও দখল করার পরিকল্পনার কথা জানানো হয়। অর্থাৎ বর্তমান যুদ্ধক্ষেত্র থেকে কয়েক শত মাইল দূরে পর্যন্ত আগ্রাসন পরিচালনা করতে হবে।

ইতোপূর্বে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বলেছিলেন যে, ইউক্রেনের শহরগুলো স্থায়ীরূপে দখল করার কোন পরিকল্পনা রাশিয়ার নেই। রাশিয়া ২০১৪ সালে ক্রাইমিয়া দখল করে নেয়। সে সময়ে পদক্ষেপটি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের ব্যাপক ভাবে নিন্দা করেছিল।

অপরদিকে, জাতিসংঘ শুক্রবার ঘোষণা করে যে, মহাসচিব অ্যান্টোনিও গুতেরেস মঙ্গলবার মস্কোতে পুতিনের সাথে সাক্ষাৎ করবেন। তা ছাড়া তিনি পররাষ্ট্রমন্ত্রী সার্গেই ল্যাভরভের সাথেও বৈঠক করবেন এবং কর্মব্যাপৃত এক মধ্যাহ্নভোজে অংশ নিবেন।

জাতিসংঘ প্রধান ইউক্রেনে শান্তির জন্য পরবর্তী পদক্ষেপ আলোচনা করতে একটি বৈঠকের অনুরোধ জানিয়ে মঙ্গলবার পুতিনকে চিঠি দিয়েছিলেন। তিনি ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেন্সকিকেও চিঠি লিখেন। গুতেরেসের মুখপাত্র জানান যে, তার দফতর কিয়েভে সফরের সূচি নির্ধারণ করতে ইউক্রেনের সরকারের সাথেও যোগাযোগ করছে।



XS
SM
MD
LG