অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

১৫ মাসের মধ্যে প্রথম পোলিও কেস শনাক্ত করেছে পাকিস্তান


পাকিস্তানের লাহোরে একটি শিশুকে পোলিও টিকা দিচ্ছেন একজন স্বাস্থ্যকর্মী, অন্যান্য শিশুরা লাইনে দাঁড়িয়ে আছে। ২৮ ফেব্রুয়ারী, ২০২২।

ইসলামাবাদ — এক বছরের বেশি সময়ের মধ্যে ওয়াইল্ড পোলিও ভাইরাসের প্রথম সংক্রমণের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে পাকিস্তানের কর্তৃপক্ষ। এটি অত্যন্ত সংক্রামক এই রোগের বিরুদ্ধে দেশটির অগ্রগতির পথে একটি ধাক্কা।

শুক্রবার এক সরকারী ঘোষণা অনুসারে, আফগানিস্তানের সীমান্তবর্তী অশান্ত উত্তর ওয়াজিরিস্তান জেলায় একটি ১৫ মাস বয়সী ছেলে শিশু পোলিও ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে পক্ষাঘাতগ্রস্ত হয়।

ইসলামাবাদের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের একজন শীর্ষ কর্মকর্তা আমির আশরাফ বলেছেন, “অবশ্যই, শিশুটি এবং তার পরিবারের জন্য এটি একটি ট্র্যাজেডি, সেই সাথে পাকিস্তান এবং সারা বিশ্বে পোলিও নির্মূল প্রচেষ্টার জন্যও অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক। এতে আমরা হতাশ হয়েছি ঠিকই, কিন্তু নিরুৎসাহিত নই”।

পাকিস্তান এবং প্রতিবেশী আফগানিস্তান হল একমাত্র দেশ, যেখানে পোলিও শিশুদের পঙ্গু করে চলেছে। যদিও সাম্প্রতিক বছরগুলিতে সীমান্তের উভয় পাশে উল্লেখযোগ্যভাবে আক্রান্তের সংখ্যা হ্রাস পেয়েছে।

এর আগে, পাকিস্তানে সর্বশেষ একটি শিশু পক্ষাঘাতগ্রস্ত হয়েছিল ২০২১ সালের জানুয়ারিতে। সেই বছর আফগানিস্তানে চারটি সংক্রমণের ঘটনা শনাক্ত করা হয়। এই বছরও আফগানিস্তানে একটি ওয়াইল্ড পোলিও ভাইরাস সংক্রমণের খবর পাওয়া গেছে।

আশরাফ বলেন, স্বাস্থ্য আধিকারিকরা পোলিও কেস সনাক্তকরণের জন্য একটি পুঙ্খানুপুঙ্খ তদন্ত কার্যক্রম পরিচালনা করছেন এবং প্রায় ২২ কোটি মানুষের দেশটিতে ভাইরাসটির আরও বিস্তার রোধ করতে জরুরি টিকাদান কর্মসূচি চলছে।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী শেহবাজ শরীফের কার্যালয় বলেছে, তিনি পোলিও নির্মূলের জন্য জাতীয় টাস্ক ফোর্সের একটি জরুরি বৈঠকে সভাপতিত্ব করবেন, ওই বৈঠকে পোলিও নির্মূলের প্রচেষ্টা পর্যালোচনা করা হবে।

১৯৯০-এর দশকের গোড়ার দিকে পোলিও বছরে প্রায় ২০,০০০ পাকিস্তানি শিশুকে পঙ্গু করে দিয়েছিল।

XS
SM
MD
LG