অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে জেলেন্সকির সাক্ষাতের মধ্যেই পূর্ব ইউক্রেনে বোমাবর্ষণ করেছে রাশিয়া


মারিউপোল সিটি কাউন্সিলের ১৯ এপ্রিল (২০২২) প্রচারিত একটি ফুটেজ থেকে নেওয়া এই ছবিতে আজোভস্টাল ইস্পাত কারখানা ও আজোভ শিপইয়ার্ডের ধ্বংসপ্রাপ্ত ফটকের ওপরে ধোঁয়ার কুণ্ডলি দেখা যাচ্ছে। (ছবি: মারিউপোল সিটি কাউন্সিলের সৌজন্যে/এএফপি)

ইউক্রেনের অবরুদ্ধ দক্ষিণের বন্দর শহর মারিউপোলের একটি ইস্পাত কারখানাসহ পূর্ব ইউক্রেনে রাশিয়া রবিবার (২৪ এপ্রিল) ভারী বোমাবর্ষণ করেছে। এমনকি ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেন্সকি কিয়েভে যুক্তরাষ্ট্রের দুই শীর্ষ কর্মকর্তা, পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিংকেন ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী লয়েড অস্টিনের সঙ্গে সাক্ষাতের সময়ও হামলা অব্যাহত ছিল।

ইউক্রেনীয় কর্মকর্তারা বলেছেন যে, রাশিয়ান বাহিনী মারিউপোলের আজোভস্টাল ইস্পাত কারখানায় নতুন করে বিমান হামলা শুরু করেছে, যেখানে আটকে থাকা ইউক্রেনীয় বাহিনী আত্মসমর্পণ করার জন্য রাশিয়ার দাবি প্রত্যাখ্যান করে আসছে।

গত সপ্তাহে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন হাজার হাজার ইউক্রেনীয় যোদ্ধা এবং বেসামরিক নাগরিকদের কাছ থেকে কারখানাটির নিয়ন্ত্রণ নেওয়ার জন্য রুশ বাহিনীকে কারখানাটি কঠোরভাবে অবরোধ করার নির্দেশ দেন। কারখানাটি অসংখ্য সুড়ঙ্গ ও গোলকধাঁধার সমন্বয়ে তৈরি।

জেলেন্সকি শনিবার সন্ধ্যায় ইউক্রেনের রাজধানীতে ব্লিংকেন ও অস্টিনের সফরের ঘোষণা দেন। যদিও দুই মাস আগে রাশিয়ার আক্রমণের পর থেকে সর্বোচ্চ পদস্থ কর্মকর্তারা ইউক্রেনে যাবেন কি না তা নিশ্চিত করতে অস্বীকৃতি জানায় ওয়াশিংটন।

রবিবারের শেষার্ধে, ইউক্রেনের প্রেসিডেন্টের কার্যালয় ঘোষণা করেছে যে, ব্লিংকেন ও অস্টিন কিয়েভে জেলেন্সকির সঙ্গে বৈঠক করছেন।

কিয়েভ সাবওয়ে স্টেশনে শনিবার একটি দীর্ঘ সংবাদ সম্মেলনে জেলেন্সকি বলেছেন যে, তিনি অস্ত্র এবং নিরাপত্তা নিশ্চয়তা উভয় ক্ষেত্রেই যুক্তরাষ্ট্রের সিদ্ধান্তের জন্য অপেক্ষা করছেন।

“আপনারা এখন আমাদের কাছে খালি হাতে আসতে পারবেন না এবং আমরা সামান্য উপহার বা কেকের আশা করছি না, আমরা নির্দিষ্ট সহযোগিতা ও নির্দিষ্ট অস্ত্রের প্রত্যাশায় আছি”, তিনি বলেন। যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন গত দুই সপ্তাহে ইউক্রেনে আরও অস্ত্রের চালানের জন্য ৮০০ মিলিয়ন ডলার এবং অর্থনৈতিক সহায়তার জন্য ৫০০ মিলিয়ন ডলারের অনুমোদন দিয়েছেন।

জেলেন্সকি যখন অস্টিন ও ব্লিংকেনের সঙ্গে বৈঠক করছিলেন ইউক্রেনীয় ও রাশিয়ানরা তখন ইস্টার পালন করছিলেন। জেলেন্সকি নিজে ইহুদি, কিন্তু কিয়েভের প্রাচীন সেন্ট সোফিয়া ক্যাথেড্রাল থেকে বক্তৃতায় তিনি ইউক্রেনীয়দের শুভেচ্ছা জানান।

কিন্তু রুশ বোমাবর্ষণ ইউক্রেনের জন্য একটি অব্যাহত হুমকি। রাশিয়ার সামরিক বাহিনী জানিয়েছে যে, তারা রাতারাতি ৪২৩টি ইউক্রেনীয় লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত করেছে, বেশির ভাগই পূর্ব দনবাস শিল্প অঞ্চলে এবং একটি বিস্ফোরক কারখানা ও বেশ কয়েকটি অস্ত্র ডিপোসহ ২৬টি ইউক্রেনীয় সামরিক স্থাপনা ধ্বংস করেছে।

অন্যদিকে জেলেন্সকি “যুদ্ধের অবসানের” জন্য পুতিনের সঙ্গে বৈঠকের আহ্বান পুনর্ব্যক্ত করেছেন।

শনিবারের সংবাদ সম্মেলনে জেলেন্সকি বলেন, “আমি মনে করি যারা এই যুদ্ধ শুরু করেছে তারাই এটি শেষ করতে পারবে”। তিনি যোগ করেন, যদি রুশ প্রেসিডেন্টের সঙ্গে সাক্ষাৎ দুই দেশের মধ্যে একটি শান্তি চুক্তির সূচনা করতে পারে তবে তিনি পুতিনের সঙ্গে “সাক্ষাৎ করতে ভয় পান না”।

[এই প্রতিবেদনের কিছু তথ্য দ্য অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস, রয়টার্স ও এজেন্সি ফ্রান্স-প্রেস থেকে নেওয়া হয়েছে]

XS
SM
MD
LG