অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

মাস্ক-টুইটার চুক্তির অর্থায়ন নিয়ে উদ্বেগের মধ্যে টেসলার মূল্য ১২৬ বিলিয়ন ডলার কমেছে


জার্মানির ফ্রাঙ্কফুর্টে টেসলা ইঙ্ক-এর দোকানে একটি টেসলা মডেল এক্স দেখা যাচ্ছে। ২৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৮। ফাইল ছবি।

টেসলার চিফ এক্সিকিউটিভ ইলন মাস্ককে ৪৪ বিলিয়ন ডলারে টুইটার কেনার জন্য ২১ বিলিয়ন ডলার ইক্যুইটি অবদানের জন্য শেয়ার বিক্রি করতে হতে পারে- বিনিয়োগকারীদের এমন উদ্বেগের মধ্যে মঙ্গলবার টেসলা ১২৬ বিলিয়ন ডলারের সমপরিমাণ মূল্য হারিয়েছে।

টেসলা টুইটার চুক্তিতে জড়িত নয়। কিন্তু টুইটার অধিগ্রহণের জন্য ইলন মাস্কের নগদ অর্থ কোথা থেকে আসছে তা তিনি প্রকাশ করতে অস্বীকার করলে টেসলার শেয়ারগুলো ফাটকাবাজদের লক্ষ্যবস্তুতে পরিণত হয়।

মঙ্গলবার টেসলার শেয়ারের হ্রাস হয় ১২ দশমিক ২ শতাংশ যা ইলন মাস্কের টেসলার শেয়ার মূল্য ২১ বিলিয়ন ডলার হ্রাসের সমান। এটি টুইটার চুক্তিতে তার প্রতিশ্রুতিবদ্ধ নগদ ২১ বিলিয়ন ডলারের সমান।

ওয়েডবুশ সিকিরিউটিজ বিশ্লেষক ড্যানিয়েল আইভস বলেছেন, মাস্কের আসন্ন স্টক বিক্রি এবং টুইটারের কারণে বিভ্রান্ত হবার সম্ভাবনা নিয়ে উদ্বেগ টেসলা শেয়ারের ওপর চাপ তৈরি করেছে। টেসলা তাৎক্ষণিকভাবে মন্তব্যের অনুরোধে জবাব দেয়নি।

প্রকৃতপক্ষে টেসলার শেয়ারের মূল্যহ্রাস প্রযুক্তি সম্পর্কিত অনেক স্টকের জন্য একটি চ্যালেঞ্জিং পটভূমিতে ঘটে। মঙ্গলবার, ২০২০ সালের ডিসেম্বরের পর থেকে নাসদাক তার সর্বনিম্ন স্তরে পৌঁছেছে কারণ বিনিয়োগকারীরা বিশ্বব্যাপী মন্থর প্রবৃদ্ধি এবং যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভের পক্ষ থেকে দ্রুত হার বৃদ্ধির বিষয়ে উদ্বিগ্ন।

টেসলা চুক্তির অংশ হিসেবে মাস্ক তার টেসলা স্টকের সাথে সংযুক্ত ১২ দশমিক ৫ বিলিয়ন মার্জিন ঋণও নিয়েছিলেন। তিনি ইতোমধ্যেই তার প্রায় অর্ধেক টেসলার শেয়ারের বিপরীতে ঋণ নিয়েছেন। উদ্ভাবন ও উদ্যোক্তা বিষয়ক গবেষক, ইউনিভার্সিটি অফ মেরিল্যান্ডের প্রফেসর ডেইড কার্শ বলেছেন, বিনিয়োগকারীরা মাস্কের ঋণে “মার্জিন কলের বহর” নিয়ে উদ্বিগ্ন হতে শুরু করেছে।

XS
SM
MD
LG