অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

রাশিয়া মারিউপোলে দিনে যুদ্ধ বিরতির প্রতিশ্রুতি দিলেও জেলেন্সকি দীর্ঘতর যুদ্ধবিরতির আহ্বান জানিয়েছেন


পূর্ব ইউক্রেনের ডোনেটস্ক গণপ্রজাতন্ত্রী সরকারের অধীন মারিউপোলে একটি ধ্বংসপ্রাপ্ত অ্যাপার্ট্মেন্ট বিল্ডিং-এর পাশ দিয়ে এক ব্যক্তি হেঁটে যাচ্ছেন। ৪মে, ২০২২।

বৃহস্পতিবার রাশিয়া ইউক্রেনের মারিউপোল শহরে যুদ্ধবিরতি পালন করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। সেখানে রুশ বাহিনী একটি ইস্পাত প্ল্যান্ট কমপ্লেক্স ব্যতীত সমস্ত এলাকা নিয়ন্ত্রণ করছে। ওই প্ল্যান্টে ইউক্রেনীয় সৈন্যরা বেসামরিক নাগরিকদের সাথে আটকে আছে। জাতিসংঘ ওই এলাকার বেসামরিক নাগরিকদের সরিয়ে নেয়ার জন্য কাজ করছে।

রাশিয়া বলেছে, আজোভস্টাল এলাকায় উদ্ধারকাজ চালানোর সুবিধার্থে শুক্র এবং শনিবার তারা দিনের বেলা যুদ্ধবিরতি অব্যাহত রাখবে।

বৃহস্পতিবার ভোরের ভাষণে ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেন্সকি বলেছেন, মারিউপোল থেকে অবশিষ্ট বেসামরিক নাগরিকদের সরিয়ে নিতে একটি দীর্ঘ যুদ্ধবিরতি প্রয়োজন।

তিনি বলেন, "সেসব বেসমেন্ট এবং ভূগর্ভস্থ আশ্রয়কেন্দ্রগুলো থেকে লোকজনকে উদ্ধার করতে সময় লাগবে। বর্তমান পরিস্থিতিতে আমরা ধ্বংসস্তূপ পরিষ্কার করার জন্য ভারী যন্ত্রপাতি ব্যবহার করতে পারি না। সব কাজ হাতে করতে হবে।"

ওয়াশিংটনে পররাষ্ট্র মন্ত্রকের মুখপাত্র নেড প্রাইস যুদ্ধবিরতি নিয়ে রাশিয়ার প্রতিশ্রুতির ব্যাপারে সংশয় প্রকাশ করেছেন।

বুধবার জাতিসংঘ বলেছে যে, মারিউপোল, মানহুশ, বার্দিয়ানস্ক,টোকমাক এবং ভাসিলিভকা থেকে উদ্ধারকৃত ৩০০ জনেরও বেশি বেসামরিক নাগরিক জাপোরিঝিয়াতে মানবিক ত্রাণ সহায়তা পাচ্ছে।

ইউক্রেনের জন্য জাতিসংঘের মানবিক সমন্বয়কারী ওসনাত লুবরানি বলেছেন, "যদিও মারিউপোল এবং এর বাইরের এলাকাগুলো থেকে এই দ্বিতীয় উদ্ধার কার্যক্রমটি তাৎপর্যপূর্ণ, যুদ্ধে আটকে পড়া সমস্ত বেসামরিক নাগরিক যেন তাদের ইচ্ছানুযায়ী যে কোনো দিকে যেতে পারে তা নিশ্চিত করার জন্য আরও কিছু করতে হবে,"।

এ প্রতিবেদনের কিছু তথ্য এপি, এএফপি এবং রয়টার্স থেকে নেয়া হয়েছে।

XS
SM
MD
LG