অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

ভিন্নমতালম্বীর বান্ধবীকে ছয় বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে বেলারুশ


২০১৯ সালে তোলা তারিখবিহীন এই ছবিতে ছাত্রী সোফিয়া সাপেগাকে সুইডেনের গোথেনবার্গে ছবির জন্য পোজ দিতে দেখা যাচ্ছে।

এক বছর আগে মিনস্কে জোর করে বিমান অবতরণ করিয়ে বেলারুশের এক ভিন্নমতালম্বী এবং তার রুশ বান্ধবীকে আটক করা হয়। শুক্রবার (৬ মে) রুশ এই নারীকে ছয় বছরের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে বলে একটি মানবাধিকার গোষ্ঠী জানিয়েছে।

২০২১ সালের মে মাসে গ্রিস থেকে লিথুয়ানিয়াগামী রায়ানএয়ারের ফ্লাইটটি বেলারুশের ওপর দিয়ে যাওয়ার সময় বিমানটিকে অবতরণে বাধ্য করা হয় এবং বিমান থেকে সোফিয়া সাপেগাকে (২৪) তার প্রেমিক বেলারুশের বিরোধী কর্মী রোমান প্রোটাসেভিচের (২৭) সঙ্গে আটক করা হয়।

রাশিয়ার নাগরিক সাপেগার বিরুদ্ধে পুলিশের প্রতি “সামাজিক বিদ্বেষ উসকে দেওয়া” এবং “সহিংসতা বা হুমকি” প্রদর্শনসহ সাতটি অভিযোগ আনা হয়েছে।

রুদ্ধদ্বার বিচারিক প্রক্রিয়ার পরে, বেলারুশের একটি আদালত সাপেগাকে ছয় বছরের কারাদণ্ড প্রদান করে বলে জানায় অধিকার গোষ্ঠী ব্যাসনা।

আটকের পর সাপেগা কর্তৃপক্ষকে সহযোগিতা করেন এবং বেলারুশের প্রেসিডেন্ট আলেকজান্ডার লুকাশেঙ্কোর কাছে মুক্তির আবেদন জানান।

প্রোটাসেভিচ ২০১৯ সালে ইউরোপে পালিয়ে যান। সেখান থেকে তিনি নেক্সটা টেলিগ্রাম চ্যানেলগুলো পরিচালনাকারীদের একজন হিসেবে কাজ করেন। বেলারুশের অন্যতম বিরোধী গণমাধ্যম নেক্সটা ২০২০ সালে বিতর্কিত নির্বাচনে লুকাশেঙ্কোর জয়লাভের বিরুদ্ধে আয়োজিত ঐতিহাসিক সমাবেশে বিক্ষোভকারীদের জড়ো করতে সহায়তা করে।

তাদের আটকের পর, প্রোটাসেভিচ এবং সাপেগা, দুজনই “স্বীকারোক্তিমূলক” ভিডিও বার্তা প্রদান করেন। তাদের সমর্থকেরা দাবি করেন, ভিডিওটি চাপের মুখে রেকর্ড করা হয়েছে এবং তাদের মতে এটা ভিন্নমতালম্বীদের ওপর চাপ প্রয়োগে সরকারের একটি সস্তা কৌশল।

প্রোটাসেভিচ বেলারুশে গৃহবন্দী অবস্থায় বিচারের অপেক্ষায় রয়েছেন।

XS
SM
MD
LG