অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

জিহাদীদের আক্রমণে মিসরে ১১ সৈন্য নিহতঃ সেনাবাহিনী


মিসরের সিনাই উপদ্বীপের মানচিত্র

শনিবার মিসরের এগারো জন সৈন্য নিহত হয়েছে। সিনাই উপদ্বীপ ঘেঁষে থাকা সুয়েজ খাল এলাকায় এক “সন্ত্রাসী” হামলা ব্যাহত করার চেষ্টা করছিল তারা। এলাকাটি জিহাদী কর্মকাণ্ডের উর্বরভূমি। মিসরের সেনাবাহিনী এসব তথ্য জানিয়েছে।

সিনাই ও এর আশেপাশের এলাকায়, ইসলামিক স্টেট গোষ্ঠীর প্রতি অনুগত জঙ্গীদের বিরুদ্ধে দীর্ঘদিন ধরে চলমান অভিযানে এটিই সেনাবাহিনীর সবচেয়ে বড় প্রাণহানির ঘটনা।

সেনাবাহিনী জানিয়েছে যে, খালের পূর্ব পাড়ে বন্দুকযুদ্ধে আরও পাঁচ সৈনিক আহত হয়েছে। তারা আরও জানায় যে, নিরাপত্তা বাহিনী “সন্ত্রাসীদের তাড়া করে সিনাইয়ের এক বিচ্ছিন্ন এলাকায় ঘিরে ফেলা” অব্যাহত রেখেছে।

প্রেসিডেন্ট আবদেল ফাত্তাহ আল-সিসি ফেসবুকে অঙ্গীকার করেন, “সন্ত্রাসবাদকে সমূলে উৎপাটন অব্যাহত রাখতে দেশ ও সেনাবাহিনীর সংকল্পকে এমন সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড দিয়ে পরাজিত করা যাবে না,”।

“সিনাইতে মিসরের সামরিক বাহিনীর সদস্যদের লক্ষ্য করে চালানো সন্ত্রাসী হামলার” নিন্দা জানিয়ে, হামলার শিকার ব্যক্তিদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেছে ওয়াশিংটন।

পররাষ্ট্র মন্ত্রকের মুখপাত্র নেড প্রাইস এক বিবৃতিতে বলেন, “অঞ্চলটিতে সন্ত্রাসবাদ মোকাবেলায় কয়েক দশক ধরে যুক্তরাষ্ট্র মিসরের সবচেয়ে কাছের সহযোগী ছিল এবং আছে।”

এক দশকের বেশি সময় ধরে মিসরের সিনাই উপদ্বীপ এক সশস্ত্র বিদ্রোহে জড়িয়ে আছে। ২০১৩ সালে প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মোরসি ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর বিদ্রোহ সবচেয়ে তীব্র রূপ ধারণ করেছিল।

XS
SM
MD
LG