অ্যাকসেসিবিলিটি লিংক

আবদুল গাফ্‌ফার চৌধুরী আর নেই: তার মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শোক


ভাষা আন্দোলনের স্মরণীয় গান ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি-এর রচয়িতা, আবদুল গাফ্‌ফার চৌধুরী

ভাষা আন্দোলনের স্মরণীয় গান ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো একুশে ফেব্রুয়ারি-এর রচয়িতা, আবদুল গাফ্‌ফার চৌধুরী মারা গেছেন। বৃহস্পতিবার (১৯ মে) সকালে যুক্তরাজ্যের লন্ডনে তিনি মারা যান। মৃত্যুকালে তার বয়স ছিল ৮৮ বছর।
বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত এ ব্রিটিশ লেখক একাধারে সাংবাদিক, কলামিস্ট, রাজনৈতিক বিশ্লেষক ও কবি হিসেবে সুপরিচিত।

পরিবারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তারা জানান, ‘হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে লন্ডনের একটি হাসপাতালে সকাল ৬:৪৯ মিনিটে (লন্ডন সময়) মারা যান তিনি। লন্ডনে বাংলাদেশ হাইকমিশন এ ব্যাপারে পরবর্তী পদক্ষেপে নেবে।’

আব্দুল গাফ্‌ফার চৌধুরীর মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শোক


এদিকে, বিশিষ্ট প্রবীণ সাংবাদিক, বুদ্ধিজীবী ও স্বাধীনতাপদক প্রাপ্ত লেখক আব্দুল গাফ্‌ফার চৌধুরীর মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এক শোকবার্তায় প্রধানমন্ত্রী বলেন, “আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো' গানের রচয়িতা আব্দুল গাফ্‌ফার চৌধুরী, তাঁর মেধা-কর্ম ও লেখনিতে এই দেশের মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে সমুন্নত রেখেছেন, ও বাঙালির অসাম্প্রদায়িক মননকে ধারণ করে জাতির পিতার স্বপ্নের সোনার বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়কে সমর্থন করে, জাতির সামনে সঠিক ইতিহাস তুলে ধরতে আমৃত্যু কাজ করে গেছেন।”

শেখ হাসিনা আরও বলেন, “তিনি মুক্তিযুদ্ধের সময় বাংলাদেশ সরকার নিবন্ধিত সাপ্তাহিক জয় বাংলা পত্রিকায় বিভিন্ন লেখালেখির মাধ্যমে, মুক্তিযোদ্ধাদের অনুপ্রাণিত করেছেন। পরবর্তীতে তিনি প্রবাসে থেকেও তাঁর লেখনীর মাধ্যমে বাঙালির মুক্তিযুদ্ধের আদর্শ দেশি-বিদেশি গণমাধ্যমে তুলে ধরেছেন।”

শেখ হাসিনা বলেন, “আব্দুল গাফ্ফার চৌধুরীর সঙ্গে আমার বহু স্মৃতি। অনেক পরামর্শ পেয়েছি। একজন বিজ্ঞ ও পুরোধা ব্যক্তিত্বকে হারালাম, যিনি তাঁর লেখা ও গবেষণায় আমাদের বাঙালির ইতিহাস ও ঐতিহ্যকে সমৃদ্ধ করেছেন।”

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী, মরহুমের আত্মার মাগফিরাত কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

XS
SM
MD
LG